সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে আ’লীগ নেত্রীর অভিযোগ


586 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে আ’লীগ নেত্রীর অভিযোগ
এপ্রিল ১১, ২০১৭ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::
সাতক্ষীরায় বিগত ইউপি নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীর পক্ষে কাজ করায় স্বাধীনতা বিরোধী একটি কুচক্রী মহল একজন মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যা মামলায় আসামী শ্রেণীভূক্ত করার পায়তারা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ভয়ে গত ছয়মাস ধরে ওই মুক্তিযোদ্ধা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে রয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান বাংলাদেশ মহিলা আ’লীগ ইশ্বরীপুর ইউনিয়ন শাখার সভাপতি আফরোজা খাতুন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, তার বাবা দেবহাটা উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়নের নাজিরের ঘের গ্রামের মোমিন উদ্দিন আহমেদ একজন মুক্তিযোদ্ধা। (গেজেট নং১১০১৯)। বিগত ২০১৬ সালের ২৩ মার্চ অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে তিনি আ’লীগ দলীয় প্রার্থী সাইফুল ইসলামের নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করেন। কিন্ত নির্বাচনের সময় মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতাকারির ভাই, ছেলে  ও ভাতিজা একই গ্রামের হাজী মুনসুর মোড়ল, ইয়ামিন মোড়ল ও ইউনুচ মোড়ল এবং কুচক্রী দালাল আকতার ঢালী জামায়াত সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী অবুল হোসেনের আনারস প্রতীকের পক্ষে কাজ করার জন্য তার বাবা মোমিন উদ্দিনের উপর চাপ প্রয়োগ করে। কিন্তু তিনি তাদের কথা না শোনায় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে শায়েস্তা করার জন্য নানা ধরনের ষড়যন্ত্র করতে থাকেন। এরই এক পর্যায় ২০১৬ সালের অগষ্ট মাসের ১৬ তারিখে নাজিরের ঘের গ্রামের মৃত মুছা মোড়লের ছেলে ইদ্রিস আলী মোড়লের লাশ পারুলিয়ার গ্রামের জনৈক তালেবের মৎস্য ঘের থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় নিহতের স্ত্রী হালিমা খাতুন অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ পরে ওই মৎস্য ঘেরের কর্মচারী পারুলিয়া গ্রামের মৃত ইছহাক সরদারের ছেলে আশরাফুল সরদারকে গ্রেফতার করে।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, ওই কুচত্রী মহলটি মোটা অংকের অর্থের বিনিময় অশরাফুলকে ম্যানেজ করে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তার সহায়তায় তাকে দিয়ে আদালতে একটি স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করায়। ওই জবানবন্দিতে আসামী আশরাফুলকে দিয়ে তারা তার বাব মুক্তিযোদ্ধা মোমিন উদ্দিনের নাম প্রকাশ করায়। স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের এহেন হিন ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে তার বৃদ্ধ পিতা মানষিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েন। পুলিশি গ্রেফতারের ভয়ে গত ছয়মাস ধরে বাড়ি ছেড়ে তিনি পালিয়ে রয়েছেন। তিনি এই হিন ষড়যন্ত্র থেকে জাতির একজন শ্রেষ্ট সন্তান মুক্তিযোদ্ধা মোমিন উদ্দিন আহমেদকে রক্ষা করতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।