সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব ও শহীদ রাজ্জাক পার্কে বৈশাখি পান্তা উৎসব


722 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব ও শহীদ রাজ্জাক পার্কে  বৈশাখি পান্তা উৎসব
এপ্রিল ১৪, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

বিশেষ প্রতিনিধি :
‘এসো হে বৈশাখ’ রুদ্র বৈশাখকে হৃদমাঝারে এভাবেই উদাত্ত আহবান জানিয়ে ‘অগ্নি¯œানে শুচি হোক ধরা’ প্রত্যাশায়  প্রাণের উচ্ছাসে মেতে উঠেছে বাঙ্গালি। ধর্ম বর্ন ভুলে আমরা সবাই বাঙ্গালি এই গর্বে গর্বিত হয়ে তারা তুলে ধরলেন চিরায়ত বাঙ্গালির ঐতিহ্য কৃষ্টি ও সংস্কৃতি।

‘একতারা বাজাইও না, দোতারা বাজাইও না , বাজাইলে মনে পড়ে যায় , একদিন বাঙ্গালি ছিলাম রে’ গলাফাটা এই সুরেলা আওয়াজে প্রাণ যখন স্পন্দিত তখন  দেশ জুড়ে বসেছিল বৈশাখি মেলা। জেলা প্রশাসন থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল , সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন  প্রাণের মেলা বৈশাখি মেলায় নিজেদের হাজির করিয়ে মেতে উঠেছিল আনন্দস্ফূর্তিতে। তরুন থেকে বৃদ্ধ , যুবা থেকে বৃদ্ধা কেউ বাদ থাকেন নি এই উচ্ছাসে। তারা হেসে খেলে নেচে গেয়ে নতুন পোশাকে , নতুন মননে ভাগাভাগি করে নেন বৈশাখি মেলাকে।

DSC01510

বৈশাখকে আলিঙ্গন জানাতে শহরের শহীদ রাজ্জাক পার্কে বসেছে তিনদিনব্যাপী বৈশাখি মেলা। বর্নাঢ্য র‌্যালি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, হাঁসধরা , সাঁতার প্রতিযোগিতা, ঐতিহ্যবাহী বাঙ্গালির খাবার পরিবেশন , লাঠিখেলা , হাডুডু খেলা , আলোচনা সভাসহ নানা আয়োজনে তারা পালন করছেন দিনটি। পহেলা বৈশাখকে ঘিরে বুধবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত তিনদিনব্যাপী সাতক্ষীরার শহীদ রাজ্জাক পার্ক জনারন্যে পরিনত হয়েছে। । সেখানে চলছে বিরতিহীন উৎসব।

সকালে জেলা প্রশাসকের বাংলোয় বসে পান্তা উৎসব । এতে নিমন্ত্রিতরা যোগ দিয়ে প্রাচীন ঐতিহ্যকে ধরে রাখার অঙ্গিকার করেন। কাল শুক্রবার জেলা পুলিশের উদ্যোগে সাতক্ষীরা পুলিশ লাইন্স মাঠে অনুষ্ঠিত হবে মনমাতানো নানা জমকালে অনুষ্ঠান। শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত হাতি ঘোড়ার নাচ থেকে সাপ খেলা , লাঠিখেলা, ম্যাজিক , কৌতুক , যাত্রাপালা আর বাউল ভাওয়ালি ভাটিয়ালি পল্লীগীতিতে ভেসে উঠবেন উৎসব প্রিয় বাঙ্গালি।

20160414_084433

রুদ্র বৈশাখের প্রথম দিন বৃহস্পতিবার প্রাণের উচ্ছাসে মেতে উঠেছিল সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবও। খরতপ্ত দাবদাহের মধ্যে দীঘির জলে  ঢেউ তুলে ভেসে  আসা দখিনা বাতাসের প্রাণ জুড়ানো দোলায় ক্লাব ভবনে সকালেই বসেছিল পান্তা উৎসব। শিশু থেকে বুড়ো বুড়িরাও প্রেসক্লাবের এই পান্তা উৎসবে মেতে ওঠেন।  প্রজনন মওসুমে ইলিশ  বর্জনের ঘোষনায় উচ্ছসিত বাঙ্গালি বেগুন পোড়া , আলুভর্তা, চিংড়ি ভর্তা , পেঁয়াজ , মরিচ পোড়া , কাঁচা মরিচ  আর নারকেল গুড় দিয়ে পান্তা সেবা করে তৃপ্ত হন। আর একই সাথে বাঙ্গালির চিরায়ত এতিহ্য পান্তাকে ধরে রেখে তারা হাজার বছরের সংস্কৃতিকে বরন করে নিতে  চান বারবার।

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের এই পান্তা উৎসবে আমন্ত্রিত হয়ে হাজির হয়েছিলেন  তালা কলারোয়া আসনের সংসদ সদস্য এড. মোস্তফা লুৎফুল্লাহ ও সংরক্ষিত মহিলা আসন ৩১২ এর সংসদ সদস্য মিসেস রিফাত আমিন ।  তারা পান্তায় অংশ নিয়ে নিজেদের বাঙ্গালিত্বের বাঁধভাঙ্গা গর্ব প্রকাশ করেন। পর্যায়ক্রমে পান্তা আয়োজনে আরও শরিক হন  সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাসেম মো. মহিউদ্দিন, জেলা পরিষদ প্রশাসক মুনসুর আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মীর মোদদাচ্ছের হোসেন, বিএমএ সভাপতি ডা. আজিজুর রহমান,  অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) এএফএম এহতেশামুল হক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) অরুন কুমার মন্ডল, সাতক্ষীরা পৌর মেয়র তাসকিন আহমেদ চিশতি, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আসাদুজ্জামান বাবু,  স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক ময়নুল হাসান , সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি দৈনিক কালের চিত্র সম্পাদক অধ্যক্ষ আবু আহমেদ,  সহকারি পুলিশ সুপার হেড কোয়ার্টার মো. আমির খসরু, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমদাদ শেখ।
20160414_085230
প্রেসক্লাব সভাপতি আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক  এম কামরুজ্জামানের সঞ্চালনায় দুপুর নাগাদ চলমান পান্তা উৎসবে আরও অংশ নেন জেলা সনাক সভাপতি অধ্যক্ষ ড. দিলারা বেগম, জেলা আওয়ামী লীগের দুই নেতা ফিরোজ আহমেদ ও  হারুনার রশীদ, ন্যাপ নেতা শেখ সাঈদ প্রমুখ ছাড়াও সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সদস্যরা। তারা  প্রেসক্লাবের প্রাণের মেলা বৈশাখি পান্তা উৎসবের সাথে নিজেদের একাকার করে বরন করে নেন ‘ এসো হে বৈশাখ’।