সাতক্ষীরা বি,আর,টি,এ অফিসে ঘুষ-হয়রানি সংক্রান্ত খবর নিয়ে তোলপাড় : জেলা প্রশাসনের জরুরী পদক্ষেপ গ্রহণ


760 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা বি,আর,টি,এ অফিসে ঘুষ-হয়রানি সংক্রান্ত খবর নিয়ে তোলপাড় : জেলা প্রশাসনের জরুরী পদক্ষেপ গ্রহণ
সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

IMG_20150929_134406
বিশেষ প্রতিনিধি :

“ সাতক্ষীরা বি,আর,টি,এ অফিসে ঘুষ ছাড়া মোটর রেজিস্ট্রেশন কাগজ জমা হচ্ছে না ! দালাল চক্র সক্রিয় ” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টা থেকে অনলাইন নিউজ পোর্টাল  ‘ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমে’ সংবাদ প্রকাশের পর সংবাদটি দুপুরের আগেই সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদের নজরে আসে।

বুধবার দুপুরেই সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এ,এফ,এম এহতেশামূল হক আকর্ষিক বি,আর,টি,এ অফিসে পরিদর্শনে যান এবং ওই অফিসের বেশকিছু অনিয়ম-দূর্নীতি চিহ্নিত করেন। জনগণ যাতে কোন ধরনের হয়রানির শিকার না হয় সে ব্যাপারে তিনি বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহন করেন ।

সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এ,এফ,এম এহতেশামূল হক বুধবার রাত সাড়ে ৯ টায় এই প্রতিবেদককে জানান, ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমে সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি আমার নজরে আসে। প্রকাশিত সংবাদে বেশকিছু অনিয়ম ও দুর্নীতির চিত্র ফুটে ওঠেছে। তিনি বলেন- বি,আর,টি,এ অফিসে মোটরযান রেজিস্ট্রেশনের টাকা জমা দিতে এসে সাধারণ মানুষ হয়রানির শিকার হবে এবং তাদেরকে ঘুষ দিতে হবে এটা কোন অবস্থাতেই মেনে নেয়া হবে না। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসানের পরিস্কার নির্দেশ কোন ধরণের দুর্নীতি ও অনিয়ম সোহ্য করা হবে না। আমি সে-টি চাই। ইতিমধ্যে ওই অফিসে বুধবার দুপুর থেকে ডিসি অফিসের প্রতিনিধি নিয়োগ করা হয়েছে। তারা এখন থেকে  ওই অফিসে গোপনে নজরদারি করবে। এখন থেকে কোন ধরণের অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ পেলে তাৎক্ষনিক শাস্তিমূলক কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরও বলেন, বিআরটিএ অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরকে ইতিমধ্যে নির্দেশ দেয়া হয়েছে, জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে এবং অফিসের দূর্নীতি ও হয়রানি বন্ধ করতে। বেশ কিছু পদক্ষেপও গ্রহণ করা হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে বুধবার বিকেলে তার নির্দেশে বিআরটিএ অফিসের সামনে সচেতনতামূলক বেশ কিছু স্টিকার লাগানো হয়েছে, যাতে মানুষ কোন দালালের খপ্পরে পড়ে হয়রনির শিকার না হয়। এই অফিসকে দালালমুক্ত করা হবে।

সূত্র জানায়, গত ২১ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এনডিসি) আবু সাঈদের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত বিআরটিএ অফিস দালাল ও হয়রানিমুক্ত করতে সেখানে অভিযানে নামে। ভ্রাম্যমান আদালতের সংশ্লিষ্ট  বিচারক  এ সময় ২ জন দালালকে হাতেনাতে আকট করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

এদিকে, সাতক্ষীরা বিআরটিএ অফিসের হয়রানি ও অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করায়  সাতক্ষীরার সচেতন মহল জেলা প্রশাসনের উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানিয়েছে। সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা, মোটরযান রেজিস্ট্রেশন করতে আর যেনো কোন মানুষকে আগের মত হয়রানি হতে না হয়।