সাতক্ষীরা মেডিকেলে করোনা উপসর্গে নারীর মৃত্যু , চিকিৎসা সেবা নিয়ে নানা প্রশ্ন


267 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা মেডিকেলে করোনা উপসর্গে নারীর মৃত্যু , চিকিৎসা সেবা নিয়ে নানা প্রশ্ন
আগস্ট ৫, ২০২০ দুুর্যোগ ফটো গ্যালারি স্বাস্থ্য
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান :
জ্বর ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আরও এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

মৃত ওই নারীর নাম গোলাপী রায় (৫০)। তিনি কলারোয়া উপজেলার তুলশিডাঙ্গা গ্রামের পরিতোষ রায়ের স্ত্রী।

বুধবার সকালে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এনিয়ে,সাতক্ষীরায় করেনার উপসর্গ নিয়ে আজ পর্যন্ত মারা গেছেন অন্তত ৫৩ জন।

এদিকে, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিন করোনা উপসর্গে মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা দিন দিন বাড়ছে। চিকিৎসা সেবা নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠছে।

একাধিক রোগি এবং তার স্বজনদের অভিযোগ, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসকদের গাফিলতির কারনে করোনা ইউনিটে প্রতিদিন কোন না কোন রোগি মারা যাচ্ছে। যে সব রোগি মারা যাচ্ছে তাদের বেশির ভাগই করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট আসছে। সঙ্গতকারনেই প্রশ্ন উঠেছে, তাহলে কেনো তারা মারা যাচ্ছে .. ? এই জিজ্ঞাসা সাধারণ মানুষের।

বিষয়টি সংশ্লিষ্ট মহলের খতিয়ে দেখা উচিত বলে মনে করেন সাতক্ষীরার সচেতন নাগরিক সমাজ।


সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডাঃ রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, জ্বর ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) বিকাল ৪ টায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি হন গোলাপী রায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকাল ৭ টার দিকে তিনি মারা যান। ভর্তির পর তার নমুনা সংগ্রহ করা হলেও এখনও তার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া যায়নি।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডাঃ জয়ন্ত সরকার জানান, স্বাস্থ্য বিধি মেনে তার মরদেহ সৎকারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। একই সাথে লকডাউন করা হয়েছে তার বাড়ি।

#