সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে চলছে ধর্মঘাট : প্রশাসনিক ভবনে তালা, মানববন্ধন


370 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে চলছে ধর্মঘাট : প্রশাসনিক ভবনে তালা, মানববন্ধন
নভেম্বর ৭, ২০১৫ ফটো গ্যালারি শিক্ষা
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল হক :
সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ধর্মধট অব্যাহত আছে। ধর্মঘাটের ৮ম দিনে অচল ছিল মেডিকেল কলেজ। শনিবার সকালে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা কলেজের প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ করে। পরে সাতক্ষীরা-কালিগঞ্জ রাস্তায় দীর্ঘ মানববন্ধন করে শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানায়, পূর্ণাঙ্গ হাসপাতাল চালু না হলে আমরা ক্লাসে ফিরবো না।

সূত্র জানায়, শনিবার ৮ম দিনের মতো সকাল থেকেই মিছিল-স্লোাগানে মুখরিত হয়ে ওঠে কলেজ ক্যাম্পাস। শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে চলে এসে অবস্থান গ্রহণ করে। শিক্ষার্থীরা সকাল সাড়ে ৯ টায় প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়ে বন্ধ করে দেয়। টানা রৌদ্রে শিক্ষার্থীরা মুহু মুহু স্লোগান দিতে থাকে। রৌদ্র উপেক্ষা করে শিক্ষার্থীরা কলেজ প্রশাসনিক ভবন বন্ধ করে দেয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে তারা। চলে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত। পরে কলেজের সামনে সাতক্ষীরা-কালিগঞ্জ সড়কে দীর্ঘ মানববন্ধন করে শিক্ষার্থীরা। সেখাসে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে রাখেন আন্দোলনের সমন্বায়ক কলেজের ৫ম বর্ষের শিক্ষার্থী আলমগীর হোসেন, মিনাক কুমার বিশ্বাস, শরিফ আহমেদ, ৪র্থ বর্ষের বানিয়া সুলতানা, ৩য় বর্ষের রাজিব হোসেন, ২য় বর্ষের রাফিকুর রহমান, রবিউল হাসান প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, ক্ষুধা ও আন্দোলন বেশিদিন জমিয়ে রাখতে নেই। সময়ের সাথে সাথে তা বাড়তে থাকে ও প্রকট আকার ধারণ করে। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল চালু করা, হাসপাতাল চালু না হলে তাদের অন্যত্র শিফট করা এবং এগুলো করা না হলে ক্লাস, আইটেম, কার্ড, টার্ম ও ওয়ার্ডসহ সকল কার্যক্রম বর্জনের ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আরো জানায়, আমরা হাজার হাজার শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে এখানে ভর্তির সুযোগ পেয়েছি। আন্দোলন করার জন্য আমরা এখানে আসিনি। আমরা পরিবারের স্বপ্ন নিয়ে ভালো ডাক্তার হওয়ার জন্য এসেছি। কিন্তু আমরা সেই সুযোগ পাচ্ছি না। রাষ্ট্র আমাদের ভালো শিক্ষার ব্যবস্থা করে দিচ্ছে না। ভালো করে না শিখলে আমাদের হাতুড়ি ডাক্তার বলবে। কিন্তু আমাদের পরিপূর্ণ শিক্ষার সুযোগ না দিয়ে হাতুড়ি ডাক্তার বানাচ্ছে সরকার। তারা আরো বলেন, এই দাবী আমাদের একার স্বার্থে নয়। এটা সাতক্ষীরা বাসীরও দাবী হওয়া উচিৎ। তারা আরো বলেন, দ্রুত তাদের দাবী বাস্তবায়ন করা না হলে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে।

প্রসঙ্গত, ৩১ অক্টোবর থেকে পূর্ণাঙ্গ হাসপাতাল চালুর দাবীতে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ বন্ধ আছে।