সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জনবল নিয়োগের টেন্ডারে অনিয়মের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


459 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জনবল নিয়োগের টেন্ডারে অনিয়মের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
মে ১২, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

 

মনজুর কাদীর পলাশ :;
সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জনবল নিয়োগের টেন্ডারে অনিয়মের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনিুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন সাবেক ছাত্রনেতা শেখ মারুফ হাসান।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, চলতি বছরের জানুয়ারী মাসে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জনবল নিয়োগের জন্য প্রথম দরপত্র আহবান করা হয়। উক্ত দরপত্রে সাতক্ষীরার একজন ঠিকাদারসহ সারাদেশের ৮ জন ঠিকাদার অংশ গ্রহন করেন। এতে পিমা এ্যাসোসিয়েট লিমিটেড সর্বোচ্চ দরদাতা হওয়ায় এবং সলুসন ফোর্স লিঃ ও একুশে সিকিউিরিটি সার্ভিস (প্রাঃ) লিমিটেড সর্বোনি¤œ দরদাতার হওয়ার কারনে হাসপাতার কর্তৃপক্ষ সেটি বাতিল করেন। পরবর্তীতে পিমা এ্যাসোসিয়েট এর দেলোয়ার হোসেন দুলালের নির্দেশ মত শর্ত দিয়ে গত ০৭/০৩/২০১৮ তারিখে পূনরায় দরপত্র আহবান করা হয়। সর্বশেষ দরপত্র আহবানে এবং খোলার সকল গতানুগতিক ধারা উপেক্ষা করে গোপন চুক্তিতে পিমা এ্যাসোসিয়েট (লিঃ)এর মালিক বরিশালের মেহেদিগঞ্জ থানার জয়নগর ইউপি নির্বাচনে বিএনপির পরাজিত প্রার্থী দেলোয়ার হোসেন দুলালকে দেয়ার প্রতিজ্ঞা রক্ষা করার জন্য গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবেসের ছুটির দিনে শহীদদের অবমাননা ও প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশ অমান্য করে টেন্ডার মূল্যয়নের দিন নির্ধারন করা হয়।
তিনি বলেন, গত ৮ বছর ধরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশসহ ১৯টি প্রতিষ্ঠানে পাঁচ শতাধিক জনবল একুশে সিকিউিরিটি সার্ভিস (প্রাঃ) লিমিটেড কর্তৃক কর্মরত আছে। এত অভিজ্ঞতার শর্তেও এই প্রতিষ্ঠানের কার্যাদেশ না দিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ শাহাজান গংরা স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি বিএনপি নেতার প্রতিষ্ঠান পিমা এ্যাসোসিয়েটকে কার্যাদেশ প্রদান করেছেন।
তিনি আরো বলেন, এর আগেও মেডিকেল কলেজের ৪৬ জন জনবল সরবরাহের টেন্ডার দেয়া হয় পিমা এ্যাসোসিয়েটকে। যা চলছে গত ৪ বছর ধরে। অর্থ মন্ত্রানালয়ের অর্থ বিভাগের নির্দেশনা উপেক্ষা করে উক্ত জনবল নিয়োগে জনপ্রতি ১৪ হাজার ৪’শ ৫০ টাকা বেতন দেয়ার কথা থাকলেও দেয়া হয় মাত্র ৭ হাজার টাকা। তা আবার ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে না দিয়ে তাদের সরাসরি হাতে দেয়া হয়। উক্ত প্রতিষ্ঠানটি নিজের ইচ্ছামত জনবল ছাটাই করে মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে নতুন জনবল সরবরাহ করে থাকে। সে অর্থের সিংহভাগ যায় সাতক্ষীরা মডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের কিছু অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পকেটে।
তিনি এ সময় স্বাধীনতা বিরোধী সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ শাহাজান গংদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন ও পিমা এসোেিয়টের কার্যাদেশ বাতিলের জন্য সরকারের কাছে জোর দাবী জানান। সংবাদ সম্মেলনে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য ও সলুশন ফোর্স (লিঃ) এর চেয়াম্যান কামরুজ্জামান সোহাগ ও ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সুকান্ত।##