সাতক্ষীরা শহরের নিম্নাঞ্চলের জলাবদ্ধতা নিরসনে জেলা প্রশাসকের উদ্যোগ : নেটপাটা অপসারণ


448 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা শহরের নিম্নাঞ্চলের জলাবদ্ধতা নিরসনে জেলা প্রশাসকের উদ্যোগ : নেটপাটা অপসারণ
জুলাই ২১, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরা শহরের ইটাগাছা, কামালনগর, পলাশপোল বাসটার্মিনালসহ সাতক্ষীরা পৌরসভার নিম্নাঞ্চল কয়েকদিনের বর্ষায় ব্যাপক জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। ইটাগাছা কামালনগর ও পলাশপোল এলাকায় অপরিকল্পিত মৎস্য ঘেরের কারনে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানাগেছে। পানি নিস্কাশণের পথ না রাখায় খড়িবিলা বাঁকাল খাল, ভাড়–খালী খালসহ শাঁখরা কোমরপুর গেই পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে অবৈধভাবে ভেড়ীবাঁধ, নেটপাটা দিয়ে এলাকার পানি নিস্কাশণের পথ অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সম্প্রতি এলাকাবাসির পক্ষে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসককে লিখিত ভাবে জানানোর পর মঙ্গলবার এরকজন নির্বাহী ম্যাজিস্টেট নিয়োগ করে পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা করেছে জেলা প্রশাসন।
জানাগেছে , সাতক্ষীরা পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন কালু ও জেলা ভূমিহীন সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলীনুর খান বাবুল এর নেতৃত্বে ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও শহর ভূমিহীন সমিতির সেক্রেটারী রেজাউল ইসলাম, ভূমিহীন নেতা আমজাদ হোসেন, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রশিদ, জামাত আলী, ফারুক হোসেন, আবু বকর, রবিউল ইসলাম, আমজাদ হোসেনসহ অর্ধশত লোকজন প্রায় ৩/৪ দিন ধরে বাঁকাল খাল ভাড়–খালীর খালসহ বিভিন্ন এলাকার কয়েকশত নেটপাটা ও বাধ অপসারণ করে। তারা ইটাগাছা বিলের কয়েকজন ঘের মালিককে বার বার তাদের ঘের দিয়ে পানি নিষ্কাশণের ব্যবস্থা করার জন্য মৌখিকভাবে জানালেও তারা পানি নিষ্কাশণের কোন ব্যবস্থা করেনি। বিষয়টি উল্লেখ করে দু’দিন আগে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করলে জেলা প্রশাসক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিষ্ণু পদ পালকে সরেজমিনে গিয়ে অবস্থা দেখা ও এবং পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেন। মঙ্গলবার  নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বিষ্ণুপদ পাল সরেজমিনে গিয়ে ঘের মালিক রজব আলী, সিরাজুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম কে ঘের কেটে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করার জন্য তাৎক্ষণিক নির্দেশ দেন। এ সময় এলাকার অর্ধশত লোক রজব আলী সিরাজুল ও সাইফুলের ঘেরের ভেড়ী বাধ কেটে পানি নিষ্কাশণের ব্যবস্থা করে। এছাড়া প্রতেকটি ঘের মালিককে আগামি বছর ঘের করার আগে পানি নিষ্কাশনের পথ ও সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী ঘের করার জন্য লিখিত একটি অঙ্গিকারনামা স্বাক্ষর করিয়ে নেন।