সাতক্ষীরা শহরে এক ঠিকাদারের বাড়িতে ডাকাত দলের হামলা, গৃহকর্তাসহ দু’জন জখম , এক ডাকাত গুলিবিদ্ধ


372 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা শহরে এক ঠিকাদারের বাড়িতে ডাকাত দলের হামলা, গৃহকর্তাসহ দু’জন জখম , এক ডাকাত গুলিবিদ্ধ
জুলাই ৯, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আব্দুর রহমান মিন্টু :
সাতক্ষীরা জেলা শহরের কাটিয়া এলাকায় ডাকাতির সময় পুলিশের গুলিতে শাহাজান আলী (৪৮) নামের এক ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়েছে। এদিকে, ডাকাত দলের অস্ত্রাঘাতে মারাত্বক জখম হয়েছে কাটিয়া গ্রামের ঠিকাদার আব্দুর রাজ্জাক ও তার ছেলে কলেজ পড়–য়া মুরাদ হোসেন (১৮)। তাদেরকে পুলিশ উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে। বৃহস্পতিবার ভোররাত আড়াইটার দিকে ঘটনাটি ঘটেছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত আড়াইটার দিকে একদল ডাকাত জেলা শহরের কাটিয়া গ্রামের ঠিকাদার আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে প্রবেশ করে গৃহকর্তাসহ পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে ফেলে। এ সময় ওই বাড়ির লোকজন ডাকাত ডাকাত করে চিৎকার দিলে তারা গৃহকর্তা আব্দুর রাজ্জাক ও তার ছেলে এইসএসসি ফলপ্রার্থী মুরাদ হোসেনকে কুপিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছালে ডাকাত দল পুলিশের উপর হামলা চালায়। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি চালালে ডাকাত শাহাজান আলী গুলিবিদ্ধ হয়। পরে পুলিশ তাকে আটক করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। অন্যান্য ডাকাত সদস্যরা পালিয়ে যায়।
এদিকে, ডাকাত দলের অস্ত্রাঘাতে আহত ঠিকাদার আব্দুর রাজ্জাক ও তার ছেলে মুরাদকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি এমদাদ শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান, ডাকাতরা ওই বাড়ি থেকে কোন মালামাল নিয়ে যেতে পারেনি। প্রতিবেশিরা ছুটে আসায় তারা মালামাল ফেলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্য ডাকাত সদস্যদেরকে গ্রেফতারেরও চেষ্টা চলছে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।