সাতক্ষীরা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০০৩ সালের এস,এস,সি ব্যাচের পূনর্মিলনী


666 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০০৩ সালের এস,এস,সি ব্যাচের পূনর্মিলনী
আগস্ট ২৪, ২০১৮ ফটো গ্যালারি শিক্ষা
Print Friendly, PDF & Email

 

মোঃ ফয়জুল হক বাবু :
কার কখন কোন বসয়টা ভাল লাগে সেটা মানুষ ভেদে ভিন্ন হয়। শৈশব থেকে বৃদ্ধ পর্যন্ত সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে মনের ও পরিবর্তন হয়। জীবনের এই প্রতিটি স্তরের ভিন্ন ভিন্ন অনুভতি। তবে এক পর্যায়ে এসে মনে হয় শৈশব জীবনের সেই বাধ্য বাধকতা, মা-বাবা ও শিক্ষকের বকুনি উপেক্ষা করে দুষ্টামি আর পড়া-লেখার অনাগ্রহ, ক্লাস ফাঁকি দিয়ে খেলা করা সেই শৈশব জীবনে ফিরে যেতে মনে চায়। তাই শৈশব স্মৃতি কে বুকে ধারণ করে, বন্ধুত্বের টানে দীর্ঘ ১৫ বছর পরে মিলিত হল সাতক্ষীরা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০০৩ সালের এস,এস,সির ব্যাচ।
বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ২০০৩ সালের এস.এস.সি ব্যাচ এর পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান হয়। অল্প সময়ের জন্য ঈদের ছুটিতে বাড়িতে এসে শত ব্যস্ততার মাঝে বন্ধুত্বের টানে ২০০৩ সালের ব্যাচের অধিকাংশ সহপাঠিরা এই পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করে। এই অনুষ্ঠানে মূল আকর্ষণ ছিল প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ, মধ্যাহ্নভোজ ও বিকালের চায়ের আড্ডা।
মধ্যাহ্নভোজ শেষে বিকালে চায়ের আড্ডায় উপস্থিত সকল সহপাঠীদের মধ্যে মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। যেটি ছিল উন্মুক্ত আলোচনা। সেখানে সকলের মত প্রকাশের সুযোগ দেওয়া হয়। উপস্থিত অধিকাংশের মতামতে উঠে আসে প্রতি বছর এরকম অনুষ্ঠানের আয়োজনের কথা। তাতে করে আমাদের ইউনিটি মজবুত হবে। একে অন্যের বিপদে আপদে সহযোগিতার মনভাব সৃষ্টি হবে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু সহপাঠী ক্ষোভ প্রাকাশ করে বলেন, যে সব সহপাঠীদেরকে একাধিকবার খবর দেওয়ার সত্ত্বেও অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়নি তাদের মন-মানসিকতা ও বন্ধুত্ব নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায়।
অবশেষে সর্বোসম্মতিতে অনুষ্ঠানের সকল ভূল ত্রুটি ক্ষমা সুন্দন দৃষ্টিতে নিয়ে পরবর্তি বছর থেকে অনপুস্থিত ২০০৩ সালের সকল সহপাঠীদের উপস্থিতি কামনা করে আরও বৃহৎ পরিসরে মিলনমেলার আয়োজনের আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়।