সাতক্ষীরা সীমান্তে ১০টি স্বর্ণের বারসহ এক চোরাকারবারী আটক


387 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা সীমান্তে ১০টি স্বর্ণের বারসহ এক চোরাকারবারী আটক
জুলাই ৩, ২০১৫ কলারোয়া খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

 

সাতক্ষীরা সীমান্তে ১০টি স্বর্ণের বারসহ
এক চোরাকারবারী আটক

আব্দুর রহমান মিন্টু,সাতক্ষীরা :
সাতক্ষীরার কাকডাঙ্গা সীমান্ত এলাকা থেকে  ১০টি স্বর্ণের বার ও একটি স্বর্ণের চেইনসহ জহিরুল ইসলাম নামে এক চোরাকারবারীকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি)। শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে তাকে আটক করা হয়। আটক জহিরুল ইসলাম কলারোয়া উপজেলার কাকাডাঙ্গা গ্রামের আবু তাছের আলির ছেলে। তিনি ইতোপূর্বে কাকডাঙ্গা বিওপিতে রান্নার কাজ করতেন। বিকালে সাতক্ষীরা ৩৮ ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে সংবাদ সম্মেলন করে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর নজির আহমেদ বকশি সাংবাদিকদের জানান, শুক্রবার দুপুরে মোটরসাইকেল যোগে দুই যুবক ভারতে পাচারের জন্য ১০টি স্বর্ণের বার নিয়ে সীমান্ত এলাকায় যাচ্ছে- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাকডাঙ্গা বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার হায়দার আলির নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা সেখানে অভিযান চালায়।
এসময় বিজিবি’র উপস্থিতি টের পেয়ে এক চোরাকারবারী পালিয়ে গেলেও জহিরুল ইসলাম নামে অপর এক চোরাকারবারী ১০টি স্বর্ণের বার ও একটি চেইনসহ আটক হয়।
আটক স্বর্ণের মূল্য ২২ লক্ষ ৮ হাজার টাকা বলে জানায় বিজিবি।
এ ঘটনায় কাকডাঙ্গা বিওপির সুবেদার হায়দার আলী বাদি হয়ে কলারোয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলায় কলারোয়া উপজেলার কেড়াগাছি গ্রামের রজব আলীর ছেলেকে পলাতক আসামি হিসেবে দেখানো হয়েছে।