সাতক্ষীরা সুলতানপুর বড় বাজারের আলু মহসীনের কান্ড !


1216 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা সুলতানপুর বড় বাজারের আলু মহসীনের কান্ড !
এপ্রিল ৫, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

খন্দকার আনিসুর রহমান ::
ভূয়া জমির মালিক সাজিয়ে নিজকর্মচারীর জমি লিখে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে জামায়াতের অর্থদাতা হিসাবে পরিচিত সাতক্ষীরার শেখ মহসীনের বিরুদ্ধে। সে সুলতান বড়বাজারে আলু ব্যবসায়ী হওয়ায় জেলায় আলু মহসীন হিসাবেও পরিচিত। তিনি জামায়াতের অর্থদাতা হিসাবে কয়েকবার গ্রেফতারও হয়েছেন। এঘটনায় ভুক্তভোগী প্রকৃত জমির মালিক সদর সাব রেজিষ্ট্রারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সূত্র জানায়, উপজেলার দহাকুলা মৌজায় জে এল নং- ৯৭ নং খতিয়ান, খতিয়ান নং- এস এ ৭৭৭ নং খতিয়ান খারিজ হতে ৭৭৭/৩/১ নং খতিয়ান, বর্তমান জরিপে ডি.পি- ৩৯৫, নং খতিয়ানে। দাগ নং- সাবেক ২৯৫৮ দাগের হাল ১২৪২ দাগে বাস্ত ৩৬ শতকের মধ্যে ০৫ শতক এর মূল মালিক শহরের বাগানবাড়ী এলাকার আব্দুল মুজিদ সরদারের ছেলে মহাসিন রেজা।
গত ১৩/৩/১৬ তারিখে ৫ শতক জমি বড় বাজার আলু মহসীন অন্য এক ব্যক্তিকে ওই সম্পত্তির ভূয়া মালিক সাজিয়ে সদর সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের দলিল লেখক মজনু ওরফে খোকার যোগসাজগে অফিসকে ম্যানেজ করে রেজিষ্ট্রি করে নেই। অথচ ওই সময়ে (দলিল রেজিষ্ট্রির দিন) জমির প্রকৃত মালিক দেশের বাইরে ছিলেন। তিনি গত কয়েক বছর আগে আলু মহসীনের আড়তে কাজ করতেন। সে বিদেশে থাকার সুবাদে চালাক মহসীন সর্ব মহলকে ম্যানেজ করে তার জমি গোপনে রেজিষ্ট্রি করে নেয়। এবিষয়ে আলী মহসীন এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি দেশে নেই বলে জানান জনৈক ব্যক্তি।
এদিকে দলিল লেখক মজনু এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, দলিল কখনো জাল হয় না। আর আপনি যে অভিযোগ করেছেন তাতে আমার কিছু বলার নেই। আপনি নিউজ করেন।
এব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর সাব রেজিষ্টার জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।
এবিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা রেজিষ্ট্রারের আশু হস্থক্ষেপ কামনা করেছে ভূক্তভোগী। সাথে সাথে তাকে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্থি দেওয়ার আহব্বান জানান ভূক্তভোগী।