সাতক্ষীরা-৪ আসনে প্রচারে বেশ এগিয়ে আতাউল হক দোলন


2128 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা-৪ আসনে প্রচারে বেশ এগিয়ে আতাউল হক দোলন
আগস্ট ৩০, ২০১৮ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

 

॥ কে . জামান ॥
—————–
সাতক্ষীরা-৪ ( শ্যামনগর ও কালিগঞ্জের আংশিক ) আসনে প্রচার প্রচারনায় বেশ এগিয়ে রয়েছেন শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক , সবার প্রিয় মানুষ এস এম আতাউল হক দোলন। তিনি বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়মূলক কর্মকান্ড তুলে ধরে গ্রামে গ্রামে গিয়ে সাধারণ মানুষকে উদ্ভুদ্ধ করছেন। ভোটারদের মন জয় করতে নানামুখি প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

শ্যামনগর উপজেলার ১২ টি ও কালিগঞ্জ উপজেলার ৮ টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত সাতক্ষীরা-৪ নির্বাচনী আসন। আসনটিতে প্রায় সাড়ে ৫ লাখ ভোটারের বসবাস।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়ন প্রত্যাশী ক্ষমতাসীন ও বিরোধী দলীয় নেতারা এখন মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। গাছের ডালে ডালে ঝুলছে তাদের নানা রঙের ছবি সম্বলিত পোষ্টার, ফেষ্টুন, ব্যানার।

সাতক্ষীরা-৪ আসনে আওয়ামী লীগের প্রায় হাফ ডজন প্রার্থী মাঠে নেমেছে। বিএনপির প্রার্থীর সংখ্যা ৩ জন, যারা মাঠ পর্যায় কাজ করছেন। এছাড়া জাতীয় পার্টি (এরশাদ) ও জামাতের একক প্রার্থী মাঠে রয়েছে।
তবে প্রার্থীদের মধ্যে প্রচার প্রচারনায় বেশ এগিয়ে রয়েছে এস এম আতাউল হক দোলন।

শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, বর্তমান এমপি এস এম জগলুল হায়দার কে পেছনে ফেলে আগামী নির্বাচনে দলের টিকিট পেতে তৎপর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আতাউল হক দোলন । তিনি এই আসনের সাবেক এমপি , বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতা এ কে ফজলুল হকের ছেলে।

প্রাক্তন এমপির ছেলে হিসেবে তার রয়েছে কাজের বাড়তি সুযোগ। স্থানীয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক ভীত মজবুত করার ক্ষেত্রে তার রয়েছে বেশ দক্ষতা। মাঠ পর্যায় নেতা-কর্মীদের সাথে তিনি যোগাযোগটা রক্ষা করে চলেছেন। সাধারণ মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে রাত-দিন কাজ করে যাচ্ছেন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে বর্তমান এমপি এস এম জগলুল হায়দারের সাথে চলছে রিতিমতো ¯œায়ুযুদ্ধ।

আগামী নির্বাচনে কে প্রার্থী হবেন তা নিয়ে স্থানীয় নেতা-কর্মীরা সভাপতি গ্র“প ও সাধারণ সম্পাদক গ্র“পে ইতোমধ্যে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। যতো দিন যাচ্ছে এই বিরোধ আরও তীব্র হচ্ছে।

জননেতা এস এম আতাউল হক দোলন ভয়েস অব সাতক্ষীরার সাথে একান্ত স্বাক্ষাতকারে বলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আমার বাবা-চাচা তথা আমার পরিবারের রয়েছে যতেষ্ট ভূমিকা। ছাত্রজীবন থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে আমি ও আমার পুরো পরিবার জড়িত। কোন কিছু পাওয়ার আশায় নয়, মানুষের কল্যানে কাজ করে যাচ্ছি। আগামীতে এ ধারা অব্যাহত রাখবো ইনশাল্লাহ।

তিনি বলেন, দলের হাইকমান্ড মনে করলে আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেবেন। আমি আমার দলীয় কর্মকান্ড দিয়ে প্রমান করতে চাই আমিই এম পি হওয়ার যোগ্যপ্রার্থী। ইতোমধ্যে আমার যোগ্যতা সাধারণ মানুষের কাছে প্রমান করেছি। মানুষ এখন অনেক সচেতন। তারা ভালো-মন্দ সবই বোঝেন।

এস এম আতাউল হক দোলন বলেন, আমি ছাত্র জীবন থেকেই সাধারণ মানুষের কল্যানে কাজ করে যাচ্ছি। নিশ্চিই দলের হাইকমান্ড আমার এসব কাজের মূল্যায়ন করবেন। সাধারন মানুষের ভালোবাসা নিয়ে আমি এগিয়ে যেতে চাই। তিনি বলেন, আমি রাজনীতি করি মানুষের জন্য। আমার দারা আজ পর্যন্ত কোন মানুষের ক্ষতি হয়নি। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য আবেদন করবো। দলের সভানেত্রী , মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত দক্ষ রাজনীতিবীদ। আমি বিশ্বাস করি তিনি আমার কাজের মূল্যায়ন করবেন। তিনি যেটি সিদ্ধান্ত নিবেন আমি তা মেনে নিয়েই সাধারণ মানুষের কল্যানে আজীবন কাজ করে যাবো।