সিঙ্গাপুর প্রবাসীর ৭ মাসের শিশু আইসোলেশনে, বাড়ি লকডাউন


158 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সিঙ্গাপুর প্রবাসীর ৭ মাসের শিশু আইসোলেশনে, বাড়ি লকডাউন
মার্চ ২৬, ২০২০ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক
হাম, ঠান্ডা ও জ্বর নিয়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি এক শিশুকে করোনা সন্দেহে আইসোলেশন ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে। শিশুটির বসয় মাত্র ৭ মাস। তার বাবা গত ৯ র্মাচ সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরে পরিবারের সঙ্গে ছিলেন। এ ঘটনার পর পলাতক থাকা বাবাকে ধরে এনে পরিবারের ৫ সদস্যের সঙ্গে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

শিশুটিকে ভর্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) তাপস কুমার সরকার বলেন, ‘নানা জটিলতা নিয়ে শিশুটি হাসপাতালে আসে। গত সোমবার জ্বর, ঠান্ডা নিয়ে হাসপাতালে আসার পর তাকে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। হামও হয়েছে তার। এরপর বৃহস্পতিবার সকাল থেকে তার অবস্থার অবনতি হয়।

তিনি জানান, শিশুটির বাবার বিদেশ থেকে আসার খবরটি তারা গোপন করেছিলেন। এটি জানার পরপরই করোনা সন্দেহে শিশুটিকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে নেওয়া হয়েছে। তার নমুনা সংগ্রহ করার জন্য বিষয়টি আইইডিসিআরকে জানানো হয়েছে। শিশুটির পরিবারের বাকিরা এখনো সুস্থ আছেন।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুবায়ের হোসেন বলেন, ‘কুষ্টিয়া শহরের একটি এলাকায় থাকেন সিঙ্গাপুর প্রবাসীর পরিবার। গত ৯ মার্চ তিনি দেশে ফেরেন। এরপর তথ্য গোপন করে আলাদা না থেকে পরিবারের সঙ্গে ছিলেন তিনি। এক পর্যায়ে শিশুটি অসুস্থ হলে হাসপাতালে আসার বিষয়টি জানা যায়। এরপর বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান ওই প্রবাসী। পরে পুলিশের সহযোগিতায় তাকে ধরে আনা হয়।’

তিনি জানান, বর্তমানে প্রবাসীর পুরো পরিবারকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। ওই প্রবাসী সিঙ্গাপুর থেকে এসেছেন ১৪ দিনের বেশি হয়েছে। শিশুটির নমুন সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হবে। রিপোর্ট নেগেটিভ হলে সেক্ষেত্রে অন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাড়িটি লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে।