সিপিজের চেয়ারপার্সন হলেন ক্যাথলিন ক্যারল


336 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সিপিজের চেয়ারপার্সন হলেন ক্যাথলিন ক্যারল
মে ২৭, ২০১৭ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
বিশ্বব্যাপী কর্মরত সাংবাদিকদের অধিকার ও মর্যাদা নিয়ে নিউইয়র্ক ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিষ্টস’ (সিপিজে) এর পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারপার্সন হলেন এপির সাবেক নির্বাহী সম্পাদক ক্যাথলিন ক্যারল। গত বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আগামী ৩ বছরের (২০২০ সাল পর্যন্ত) জন্য স্যান্দ্রা মিমস রোয়ের স্থলাভিষিক্ত হলেন ক্যাথলিন ক্যারল।

নবনির্বাচিত চেয়ারপার্সন ক্যাথলিন সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, ‘সিপিজের মত একটি খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব পেয়ে সম্মানিতবোধ করছি। সাংবাদিকদের নিরাপত্তায় একদল কর্মী নিষ্ঠার সাথে কাজ করছেন এই সংস্থায়, আমি তাদের অভিবাদন জানাচ্ছি। ’

তিনি আরো বলেন, ‘এখনও বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে সাংবাদিকরা প্রচন্ড ঝুঁকির মধ্য দিয়ে দায়িত্ব পালন করছেন, অনেকের প্রাণ কেড়ে নেয়া হয়েছে। পেশাগত কারণে ক্ষুব্ধ মহল কর্তৃক সাংবাদিকদের জেলে নেয়ার ঘটনাও ঘটছে। আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকে। হুমকি দেয়া হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এমনকি, এই যুক্তরাষ্ট্রেও ক্ষমতাধর রাজনীতিকরাও সাংবাদিকদের অপদস্তমূলক মন্তব্য/মতামত ব্যক্ত করছেন। অথচ দুইশত বছর আগের সংবিধানেই সাংবাদিকদের অবাধ স্বাধীনতা নিশ্চিত করা হয়েছে। ’

এদিকে নতুন চেয়ারপার্সনকে স্বাগত জানিয়ে সিপিজের নির্বাহী পরিচালক যোয়েল সাইমন বলেছেন, ‘পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকদের কী ধরনের পরিস্থিতির সম্মুখীন ও মোকাবেলা করতে হয় সেটি ক্যাথলিনের চেয়ে আর কেউ বেশী জানেন না। সে কারণে, তিনিই হচ্ছেন সিপিজে’র মত একটি সংস্থার অধিকতর যোগ্য নেতা। ’

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে সিপিজে’র পরিচালনা পরিষদে যোগদানের পর ক্যাথলিন গত ৫ বছর ভাইস চেয়ারের দায়িত্বে ছিলেন। ২০০২ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত তিনি এপি (এসোসিয়েটেড প্রেস)’র নির্বাহী সম্পাদক এবং সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন। ৯৭ দেশে ২৪৩টি ব্যুরো রয়েছে এপির। এপি’র ডালাস ব্যুরোতে সংবাদদাতা হিসেবে তার কর্মজীবন শুরু হয় ১৯৭৮ সালে।