সীমান্তে হত্যাকাণ্ড নিয়ে উদ্বেগ বিএসএফ মহাপরিচালকের


76 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সীমান্তে হত্যাকাণ্ড নিয়ে উদ্বেগ বিএসএফ মহাপরিচালকের
জুন ১৫, ২০১৯ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

গত বছরের প্রথম পাঁচ মাসের তুলনায় এ বছর প্রথম পাঁচ মাসে সীমান্ত হত্যাকাণ্ড বেশি হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) মহাপরিচালক (ডিজি) রজনীকান্ত মিশ্র। একইসঙ্গে কেন হত্যাকাণ্ড ঘটছে, তাও খুঁজে বের করার অনুরোধ জানান তিনি।

তবে সীমান্তে ‘হত্যাকাণ্ড’ শব্দের সঙ্গে তিনি একমত নন। বিএসএফপ্রধান বলেছেন, সীমান্তে অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু হচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ে ‘অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু’র সংখ্যা কিছু বেড়েছে।

তিনি বলেন, যখন কোনো বিকল্প থাকে না, বিএসএফ তখন প্রতিহত করে শুধু। আর তাতে বিএসএফ সদস্যরাও প্রাণ হারিয়েছেন।

শনিবার পিলখানা সদর দপ্তরে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) মহাপরিচালক পর্যায়ে তিন দিনব্যাপী বৈঠক শেষ হয়। পরে বিজিবি সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

বিএসএফপ্রধান জানান, গত বছর ভারতীয় ভূমিতে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন বাংলাদেশি, ছয়জন ভারতীয়। একজন জওয়ান মারা গেছেন, ৩৯ জন আহত হয়েছেন। এ বছরও তিনজন নিহত হয়েছেন। তারা প্রতিটি ঘটনায় নিয়মমাফিক থানায় মামলা করেছেন এবং তদন্ত করেছেন।

তার আগে সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে বিজিবির মহাপরিচালক মো. সাফিনুল ইসলাম জানান, বৈঠকে কিছু বিষয়ে তারা ঐকমত্যে পৌঁছেছেন। দুই পক্ষ মাদকদ্রব্য চোরাচালান, অস্ত্র ও স্বর্ণ চোরাচালান ও নকল টাকা রোধ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এছাড়াও দুই বাহিনীর কেউ যেন অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম না করে, সে ব্যাপারেও কথাবার্তা হয়েছে।