সুন্দরবনের দরজাল খালে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু খলিল নিহত । অস্ত্র-গুলি উদ্ধার


546 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সুন্দরবনের দরজাল খালে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু খলিল নিহত । অস্ত্র-গুলি উদ্ধার
আগস্ট ৩১, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির,বাগেরহাট:
সুন্দরবনের শরনখোলা রেঞ্জের দরজার খালে র‌্যাব ও বনদস্যু বাহিনীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে মনির বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড খলিলুর রহমান খলিল (৩০) নিহত হয়েছে।

সোমবার ভোর সাড়ে ৫ টার দিকে এই আধা ঘন্টা ব্যাপী  এবন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।  এসময় ৪টি সিঙ্গেল ব্যারেল বন্দুক, ৩টি কাটা রাইফেল ১টি ডাবল ব্যারেল বন্দুক , ৩টি এলজি , ১টি এয়ারগানসহ মোট ১২টি দেশী বিদেশী আগ্নেয়াস্ত্র  ও ১১৪ রাউন্ড তাজা গুলি,৬টি ধারালো অস্ত্র, ২টি মোবাইল ফোন, ৩টি সিমকার্ড ও জেলেদের কাছথেকে চাঁদা আদায়ের টোকেন  উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব -৮ এর কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল ফরিদ জানান, ভোরে জেলেদের উপর হামলার পরিকল্পনার খবর পেয়ে র‌্যাব-৮ এর একটি দল সুন্দরবনে টহল জোরদার করে। টহলের এক পর্যায়ে শরনখোলা রেঞ্জের দরজার খাল এলাকায় র‌্যাবের সদস্যদের উপর বনদস্যুরা গুলি বর্ষন শুরু করে। র‌্যাবও পাল্টা গুলিবর্ষন শুরু করে। এক পর্যায়ে বনের গহীন থেকে গুলির শব্দ বন্ধ হলে ও বনদস্যুরা পিছু হটলে র‌্যাব টহল দলের সদস্যরা সুন্দরবনের গহীনে তালাশি শুরু করে।

এ সময়ে র‌্যাব সদস্যরা এক বনদস্যুর গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে থাকতে দেখে ও সুন্দরবনের মধ্যে ছড়ানো ছিটানো আগ্নেয়াস্ত্র ও ধারালো অস্ত্র পড়ে থাকতে দেখে সে গুলো উদ্ধারা করে। পরে খবর পেয়ে স্থানীয় জেলেরা এসে নিহত ব্যাক্তি বনদস্যু মনির বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড খলিলুর রহমানের লাশ বলে সনাক্ত করে।

নিহত খলিল ও উদ্ধারকৃত আগ্নেয়াস্ত্র বাগেরহাটের শরনখোলা থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে র‌্যাব-৮ এর কর্মকর্তা জানান।