সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে কোর্ষ্ট গার্ডের ফ্লাগ লাগানো ট্রালার থেকে ৫০০ পিচ গরান কাঠ উদ্ধার


2346 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে কোর্ষ্ট গার্ডের ফ্লাগ লাগানো ট্রালার থেকে ৫০০ পিচ গরান কাঠ উদ্ধার
জুলাই ৩০, ২০১৫ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

মেহেদী হাসান মারুফ, শ্যামনগর :
পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের কৈখালী কোষ্ট গার্ডের ফ্লাগ লাগানো ট্রলার থেকে প্রায় ৫০০ পিচ গরান কাঠ আটক করেছে বন বিভাগ।  কৈখালী ষ্টেশনের বন কর্মীরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে তা আটক করে।
কৈখালী ষ্টেশন অফিসের এফ জি জাহিদ হোসেন ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান, বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ষ্টেশন থেকে ২ কিলোমিটার দূরে সুন্দরবনের ভাড়ুখালী নামক স্থানে অভিযান চালিয়ে প্রায় ৫০০ পিচ গরান কাঠসহ একটি ইঞ্জিন চালিত ট্রালার আটক করা হয়। এসময় কাঠ কাটার সাথে জড়িত ১০-১২ জন বনের ভিতর পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও ট্রলার মালিক ও মাঝি টেংরাখালী গ্রামের গফুর আলীর পুত্র আব্দুর রশিদকে আটক করে তারা। এ সময় ওই ট্রলারে কোর্ষ্ট গার্ডের ফ্লাগ লাগান ছিল। আব্দুর রশিদ জানায়, তার ট্রালারটি কোর্ষ্ট গার্ড সদস্যরা সুন্দরবনে টহলের কাজে মাঝেমধ্যে ব্যবহার করে। স্থানীয়রা জানায়, ট্রলার মালিক আব্দুর রশিদ কোর্ষ্ট গার্ডের নাম ভাঙিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সুন্দরবনের বিভিন্ন প্রজাতীর কাঠ পাচার করে এলাকায় বিক্রী করে আসছে। কৈখালী কোর্ষ্ট গার্ডের দায়িত্বে থাকা এক কর্মকর্তার চাপে বনকর্মীরা আটককৃত রশিদ কে ছেড়ে দিলেও ট্রলার ও গরান কাঠ ষ্টেশন অফিসে জব্দ করে রেখেছে। ঘটনাটি কৈখালী ষ্টেশন কর্মকর্তা জামাল উদ্দীন নিশ্চিত করেছেন।তবে কি কারনে ট্রলার মাঝি রশিদকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে জানতে চাইলে তিনি কোন মন্তব্র করতে রাজি হননি।