সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে বিষ দিয়ে মাছ ধরার সময় ৬ জন আটক


325 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে বিষ দিয়ে মাছ ধরার সময় ৬ জন আটক
এপ্রিল ২৬, ২০১৬ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান ও ইব্রাহিম খলিল :
সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জের গহীনে বিষ দিয়ে মাছ ধরার সময় ছয় চোরাশিকারিকে আটক করেছে বন বিভাগ। এ সময় তাদের কাছ থেকে দুটি মাছ ধরার নৌকা জাল ও বিষ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ৮ টার দিকে সুন্দরবনের কাটাকুটি এলাকা থেকে তাদের কে আটক করা হয়।
আটককৃতরা হলেন, শ্যাননগর মুন্সিগঞ্জ এলাকার আব্দুর রহিম, মতিয়ার রহমান,আব্দুল করিম, মোজাম হোসেন, ইসমাইল গাজী ও মাসুম বিল্লাহ।

সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের এসিএফ শোয়েব খান জানান, সুন্দরবনের ভিতরে বিভিন্ন নদীতে বেশ কিছুদিন যাবত বিষ দিয়ে চোরাশিকারিরা মাছ ধরছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বনবিভাগ সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় সুন্দবনের কাটাকুটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুটি নৌকা জাল সহ ছয় চোরাশিকারিকে আটক করা হয়। তিনি আরো জানান, আটককৃতদের শ্যামনগর থানায় সোপার্দ করা হয়েছে।

এদিকে আমাদের সুন্দর অঞ্চল প্রতিনিধি আইয়ুব আলী জানান, ২৬ এপ্রিল কদমতলা ফরেষ্ট স্টেশন কর্মকর্তা শ্যামা প্রসাদ মন্ডল ভোর ৫.৩০ টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে মালঞ্চ নদীর টাটের খাল নামক স্থানে টহলদান কালে সুন্দরবনে নিষিদ্ধ ভেসালী জাল এবং ২খানা নৌকাসহ ৬ জনকে আটক করেন। পরবর্তীতে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) শ্যামনগর কর্তৃক ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৬জন আসামির প্রত্যেককে ৫হাজার টাকা করে মোট ৩০হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

আসামিগণ যথাক্রমে ১. আব্দুল করিম ২.আব্দুল রহিম উভয় পিং- ঈসমাইল গাজী, ৩.ঈসমাইল গাজী, পিং- মৃত রহমান গাজী, ৪. মতিয়ার রহমান, পিং- আব্দুল রহিম ৫. মোজাম পিং- মুজিবর সরদার, ৬. মাসুম বিল্লাহ পিং- ফজর আলী গাজী। তারা সকলেই শ্যামনগর উপজেলার সেন্ট্রাল কালীনগর গ্রামের বাসিন্দা। কদমতলা ফরেষ্ট স্টেশন কর্মকর্তা শ্যামা প্রসাদ মন্ডল জানান, ভেসালী জাল ৩টি পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে এবং নৌকা ২টি জব্দ করে কদমতলা ফরেষ্ট ষ্টেশনের রাখা হয়েছে।