সুস্থ থাকতে ইফতারে কী খাবেন


461 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সুস্থ থাকতে ইফতারে কী খাবেন
মে ২৮, ২০১৭ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
রোজার শারীরিক সুস্থতা বজায় রাখতে  সঠিক ও স্বাস্থ্যকর ইফতারি অনেক জরুরি। সুষম এবং স্বাস্থ্যকর  ইফতারি যথাযথ পুষ্টি চাহিদা  পূরণের পাশাপাশি শরীরকে সুস্থ ও সক্রিয় রাখতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে।

ইফতারির মেনু এমনভাবে নির্বাচন করতে হবে যেন পরিমাণে সবার জন্য তা উপযোগী হয়।

উপোস ভেঙেই খেজুর, ফিগ জাতীয় ফল, বাদাম খান। এতে ফ্রুক্টোজের পরিমাণ প্রচুর।

স্যুপ বা পোরিজের সঙ্গে খেজুর, দুধ ও চা ইফতারের আদর্শ খাবার। এতে তখন পেটও ভরবে, ডিনারের জন্য শরীরকে তৈরি রাখবে।

উপোস ভেঙেই এক গাদা মিষ্টি, শরবত খেয়ে নেবেন না। এতে শরীর খারাপ হবে।

খাবারের সঙ্গে কখনই ফল খাবেন না। ফল খেয়ে উপোস ভেঙে একটু পর খাবার খান। এক সঙ্গে খেলে হজমের সমস্যা হতে পারে।

যদি বাদাম খান, সঙ্গে চিজ খাবেন না। শরীর এক বারে এক ধরনের কনসেট্রেটেড প্রোটিন হজম করতে পারে। দুটো এক সঙ্গে হলে হজমে সমস্যা হতে পারে।

মাংস খেলে সঙ্গে চিংড়ি বা কোনও রকম সিফুড এড়িয়ে চলুন। সারা দিন উপোসের পর বেশি প্রোটিন হজমের গন্ডগোল ঘটাবে।

দুগ্ধজাত খাবার ও সাইট্রাস ফল কখনই এক সঙ্গে খাবেন না। ফলের অ্যাসিডে দুধ ছানা কেটে গিয়ে পেটের ভয়ঙ্কর গোলমাল ঘটাতে পারে।

যতই তেষ্টা পাক, উপোস ভেঙেই প্রচুর পানি খাবেন না। এতে পেট ব্যথা হবে, ক্লান্ত হয়ে পড়বেন।

যতই খিদে পাক ইফতারে কখনই বেশি খেতে যাবেন না। অল্প করে খেয়ে উপোস ভাঙুন। দু’ঘণ্টা পর রাতের খাবার খেয়ে নিন।

যদি রাতের খাবার না খেতে চান, তাহলে ইফতার করেই ঘুমোতে চলে যাবেন না। একটু হেঁটে আসুন। পরিবারের সঙ্গে গল্প করে কিছুটা সময় কাটান।