সুড়ঙ্গ ধ্বংস, হুমকির মুখে গাজার ১৮ লাখ বাসিন্দা


290 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সুড়ঙ্গ ধ্বংস, হুমকির মুখে গাজার ১৮ লাখ বাসিন্দা
নভেম্বর ১১, ২০১৫ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে খুশি করতে দেশটির গাজা থেকে মিসর পর্যন্ত আসা ৩১টি সুড়ঙ্গ ধ্বংস করেছে মিশরের সেনাবাহিনী। মিসরীয় সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এ খবর জানিয়েছে আলজাজিরা।

খবরে বলা হয়, রবিবার মিশরের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সমির এক বিবৃতিতে জানান, গত অক্টোবরে রাফা সীমান্ত দিয়ে ৩১টি সুড়ঙ্গ চিহ্নিত ও ধ্বংস করেছে মিসরীয় সামরিক বাহিনী।

কায়রোতে মিসরের প্রেসিডেন্ট আবেদেল ফাত্তাহ আল-সিসি ও ফিলিস্তিনী প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের মধ্যকার এক বৈঠক অনুষ্ঠানের দিন এ কথা জানানো হয়।

গাজা শাসনকারী ইসলামপন্থী দল হামাস আব্বাসের ফাতাহ’র রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী। আর হামাসকে মুসলিম ব্রাদারহুডপন্থী আখ্যায়িত করে বাঁকা চোখে দেখে সিসি প্রশাসন।

এদিকে, মিসরের রাফা সীমান্তের কাছে ওই সুড়ঙ্গগুলো ধ্বংস করার ফলে গাজার প্রায় ১৮ লাখ বাসিন্দা মানবিক সঙ্কটে পড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সুড়ঙ্গগুলো মূলত পণ্য পরিবহনে ব্যবহার করা হত।

প্রসঙ্গত, ২০০৭ সালে সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হয়ে হামাস ক্ষমতায় এলে গাজার ওপর অবরোধ আরোপ করে ইসরায়েল ও মিসর। তখন থেকেই রাফা সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়। মাঝে মুসলিম ব্রাদারহুড সমর্থিত ফ্রিডম এ্যান্ড জাস্টিস পার্টি মিসরের ক্ষমতায় এলে এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়। তবে ২০১৪ সালে গাজায় ৫১ দিনব্যাপী ইসরায়েলী বর্বর হামলার পর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আহ্বানের পরিপ্রেক্ষিতে সাময়িকভাবে সীমান্তটি আবারও খুলে দেয় সিসি সরকার। তবে কিছুদিন পরই তা পুনরায় বন্ধ করে দেওয়া হয়।