স্ত্রীর অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা এক স্বামীর


432 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
স্ত্রীর অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা এক স্বামীর
ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৬ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
স্ত্রীর অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এক ব্যক্তি। সংবাদ সম্মেলনে তিনি স্ত্রীর অত্যাচার ও নানা অপকর্মের কথা তুলে ধরে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁকাল দৌলতপুর গ্রামের গোষ্ঠ বিহারী সরকারের ছেলে লক্ষণ চন্দ্র সরকার এই সংবাদ সম্মেলন করেন।
এ সময় লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৮ বছর আগে সাতক্ষীরা দেবহাটা উপজেলার বঘুনাথপুর গ্রামের হরেকৃষ্ণ মন্ডলের মেয়ে বিথিকা রানীর সাথে হিন্দু ধর্মীয় আইন মতে তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু বিয়ের পর থেকে বিথিকা রানী নিজের খেয়ালখুশি মতো চলতে থাকে। এরই মধ্যে তাদের পরিবারে দুটি সন্তান আসে। তারপরও বিথিকা রানী বেপরোয়া জীবনযাপনে অভ্যস্ত হয়ে ওঠে এবং তার আপন বোনাইয়ের সাথে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এনিয়ে কয়েক দফা শালিশ হলেও স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসেনি বিথিকা। গত ১ ফেব্রুয়ারি ১৬‘ সে বাড়ি থেকে নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে তার বোনাইয়ের বাড়িতে গিয়ে ওঠে। সেখান থেকে ফিরিয়ে আনতে গেলে আমাকেই তাড়িয়ে দেয়। শুধু তাই নয়, স্বাধীনতা পাওয়ার জন্য সে আমার নাবালক কন্যাকে আমার অবর্তমানে ভারতে বিয়ে দিয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি স্ত্রীর অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে পুলিশ সুপারের  হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। ##