নলতা রুপালী ব্যাংকের ম্যানেজার জহুরুল সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত


1829 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
নলতা রুপালী ব্যাংকের ম্যানেজার জহুরুল সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত
জানুয়ারি ৬, ২০১৭ কালিগঞ্জ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সোহরাব হোসেন সবুজ, নলতা:
বছরজুড়ে কাজের শেষে একটু ঘোরাঘুরি আর আনন্দ উপভোগের জন্য আয়োজন ছিল আনন্দ ভ্রমনের। সবার মন ছিল দর্শনীয় স্থান কুয়াকাটা দেখার। এমন আয়োজনে একত্রিত হল কালিগঞ্জের নলতা শরীফের অনেকগুলো সম্ভ্রান্ত পরিবারের নারী, শিশু ও মা-বাবা ভাই, বোনসহ অনেকেই। রূপালী ব্যাংক নলতা মোবারক নগর শাখার আয়োজনে ছিল এই ভ্রমন। বৃহঃবার সন্ধ্যায় নলতা থেকে রওনা হয় ২টি বাসে প্রায় ১শ জনের পরিবার। খুলনা রূপসা ব্রীজ পার হয়ে রাত ৯টার দিকে খুদের বটতলা নামক স্থানে একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাল্টি খেয়ে পড়ে যায় পাশের ছোট নদীতে। ঘটে যায় এক হৃদয়বিদারক ঘটনা। নদীতে বাসের নিচে চাঁপা পড়ে নিহত হয় নলতা রূপালী ব্যাংকের নবাগত ব্যবস্থাপক জহুরুল ইসলাম (৫২) এবং নলতা ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আনিছুজ্জামান খোকনের একমাত্র পুত্র রোকনুজ্জামান বাবু (৩৯)। ঘটনাস্থল থেকে স্থানীয়রা নারী শিশুসহ প্রায় ৩০জনকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেলে ভর্তির ব্যবস্থা করেন। এদের মধ্যে নিহত বাবুর পিতা আনিছুজ্জামান খোকন ও শ্যাম কুমার দুইজন মারাত্মক অবস্থায় পরিনত হয়েছে এবং বাকীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে মধ্য রাতে ও পরেরদিন সকালে বাসায় পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। শুক্রবার বাদ জুম’আ নলতা শরীফ শাহী জামে মসজিদে সহ¯্রাধিক মুসল্লির সমাগমে মরহুমের জানাযা সম্পন্ন হয়েছে। এবং বাদ আসর তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।


এদিকে বন্ধুসুলভ ও সদালাপি ব্যক্তিত্ব নিহত বাবুর পিতা-মাতা, স্ত্রী ও দুই শিশু কন্যা একমাত্র স্বজনকে হারিয়ে পাগল প্রায়। বাড়ীর একমাত্র কর্তা ছিল বাবু। তাঁকে ঘিরে সকলের ছিল বুকভরা আশা আর স্বপ্ন। বৃদ্ধপ্রায় বাবার পরে পুরো পরিবারের হাল ধরবে সে। কিন্তু এক নিমিষেই পরিবারের সকলের সেই স্বপ্ন আর আশার আলো নিভে গেল। কে দেখবে তাদের। কি হবে পরিবারের। আর প্রিয়জনকে ছেড়ে কি করে থাকবে তাঁরা। একই ঘটনা ব্যাংকের ব্যবস্থাপকের। নিহত ব্যবস্থাপক জহুরুল ইসলামেরও দুই জন শিশু কন্যা আর স্ত্রী। চুরমার হয়ে গেল সেই স্বজন হারা স্ত্রী, কন্যা আর পরিবারের স্বপ্ন। তাঁকে জানাযা শেষে ঝাউডাঙ্গা গ্রামে দাফন করা হয়েছে বলে জানা যায়।


এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নলতা এলাকায় থমথমে অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে আর সকলের মধ্যে নেমে এসেছে শোকের বিষাদ ছায়া।
এ ঘটনায় শোক সন্ত্রস্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছে সাবেক সফল স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডাঃ আফম রুহুল হক এমপি, নলতা কেন্দ্রীয় আহছানিয়া মিশন, নলতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ সদস্যবৃন্দ, মানিকতলার আহছানিয়া দরবেশ আলী মেমোরিয়াল ক্যাডেট স্কুলের ছাত্রছাত্রী-শিক্ষক ও কর্তৃপক্ষ, নলতা ইউনিয়ন পরিষদ, রূপালী ব্যাংক কর্তৃপক্ষসহ সুধীজনরা সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।