হরিঢালী ক্যাম্পের সেই ইনচার্জের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ


123 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
হরিঢালী ক্যাম্পের সেই ইনচার্জের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ
মে ৯, ২০২১ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ফলোআপ রিপোর্ট……

স্টাফ রিপোর্টার ::

চুরি মামলার ভয় দেখিয়ে আর এক গরীব কামার শ্রমিকের নিকট থেকে দুইহাজার পাঁচশ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন হরিঢালী পুলিশ ক্যাম্পের বহুল আলোচিত সেই ইনচার্জ এস আই মোঃ মনিরুজ্জামান হাজরা। এমনিভাবে মামলার ভয় দেখিয়ে সে হরিঢালী ইউনিয়নের নগর শ্রীরামপুর গ্রামের মৃত শহীদ হাজরার ছেলে আরিফ আহম্মেদের নিকট থেকে দুইহাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছিলেন। পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়নের উত্তর সুলুয়া গ্রামের রহমত হালদারের ছেলে-হারুন হালদার (৩০)স্থানীয় গোলাবাটী মোড়ে একটি কামার শালার একজন শ্রমিক। কিছুদিন আগে সে এলাকার জনৈক ব্যক্তির নিকট থেকে একটি পুরাতন ফোন ক্রয় করে ব্যবহার করে আসছিল। ব্যবহারের সপ্তাহ খানেক পর ওই ফোনটি স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক রেজাউল করিম হাজরা ফোনটি তার বলে দাবি করলে হারুন ওই ডাক্তারকে ফোনটি দিয়ে দেয়। ডাক্তার খুশি হয়ে ওই কামার শ্রমিককে ৫শ টাকা দিয়ে দেয়। এ বিষয়ে ডাক্তার কোথাও কোন অভিযোগ করেন নি। কিন্তু বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনার কয়েক দিন পর এস আই মনিরুজ্জামান গরিব ওই কামার শ্রমিক হারুনকে মোবাইল চুরির মামলা দেয়া হবে বলে ভয় দেখায়। এক পর্যায়ে এস আই মনিরুজ্জামান তার ব্যত্তিগত সোর্সও দালাল হরিদাশ কাঠী গ্রামের এক যুবককে হারুনের কাছে পাঠায়। এসময় হারুন ভয়ে ওই দালালকে ৫ শ টাকা আর ক্যাম্প ইনচার্জকে ২ হাজার টাকা দালালের কাছে দেয় বলে কামার শ্রমিক সাংবাদিকদের কাছে তথ্য দেন।
এস আই মনিরুজ্জামান শুধু মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়া নয়, এলাকার দিপক রায়ের নিকট থেকে ১০ হাজার, মাদার গাজীর নিকট থেকে ১০ হাজার, হাবিবুর সরদার, হালিম সানা, মোস্তাক সরদারসহ বহু লোকের নিকট থেকে বিভিন্ন কায়দায় হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়াসহ নানা অনৈতিক কর্মকান্ডে বস্তুনিষ্ট সংবাদ বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়া ও অনলাইন পোর্টালে ধারাবাহিক ভাবে প্রকাশিত হচ্ছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে একাধিক নারীকেলেংকারীর ভয়াবহ অভিযোগ পাওয়া গেছে।

                                                                                    ##

.