‘হলিউড ওয়াক অব ফেম’ থেকে উচ্ছেদ করা হল ট্রাম্পকে


396 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
‘হলিউড ওয়াক অব ফেম’ থেকে উচ্ছেদ করা হল ট্রাম্পকে
অক্টোবর ৩০, ২০১৬ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক :
হলিউডের যে সব স্থাপনা ট্যুরিস্টদের কাছে অনেক বেশি আকর্ষণীয় তার মধ্যে অন্যতম হল ‘হলিউড ওয়াক অব ফেম’। এই ওয়াক অব ফেম নামে অভিহিত ফুটপাতে বিশ্বের বিখ্যাত প্রায় আড়াই হাজার মানুষের নামে তারকা চিহ্নিত করা আছে।

তাই এ ওয়াক অব ফেম হলিউডের অন্যতম ট্যুরিস্ট ডেস্টিনেশনও। আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামেও একটি স্টার বা তারকা বরাদ্দ ছিলো ওয়াক অব ফেমে। হলিউডের সঙ্গে সেভাবে না জড়ালেও কোনো এক টেলিভিশন অনুষ্ঠানের সৌজন্যে তার নাম জুড়ে গেছে এখানে।

ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়িয়ে নাম ডাক কেনার পর থেকেই এতদিন কারও নজর না থাকলেও এখন প্রতিনিয়ত বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছে ট্রাম্পের ওই স্টার।

যাওয়া আসার পথে ট্রাম্পবিদ্বেষী অনেকেই নাকি ট্রাম্পকে পদাঘাত না করতে পেরে মনের ঝাল মেটাচ্ছেন ওই স্টারে লাথি মেরে। তবে এতদিন এসবের ওপর দিয়ে চললেও এবার সরাসরিই আক্রমণের শিকার হলো ট্রাম্পের ওই স্টার।

দিন কয়েক আগে জেমি ওটিস নামের এক ব্যক্তি রীতিমত গাইতি শাবল দিয়ে ওই ট্রাম্পের ওই ‘স্টার’কে ওয়াক অব ফেম থেকে উচ্ছেদের চেষ্টা চালালেন। গত বুধবার ভোরবেলা রীতিমত সবার সামনেই এই কর্ম সম্পাদন করেন তিনি। সিসি টিভির ফুটেজ দেখে ওটিসকে শনাক্ত করে হলিউডের পুলিশ। অবশ্য পরে ওই ব্যক্তি নিজেই পুলিশের কাছে ধরা দেন। মার্কিন আইন অনুযায়ী এ কাজের জন্য ওটিসের তিন বছর পর্যন্ত জেল এবং দশ হাজার ডলার পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে।

তবে এই কাজ করে বিন্দুমাত্র অনুতপ্ত নন ওটিস। এনবিসি৪ নি‍উজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ওটিস বলেন, “বেশ করেছি এই কাজ করে। এই কাজ করে আমি গর্বিত। এর জন্য যে কোনো ক্ষতিপূরণ বা শাস্তির সম্মুখীন হতে রাজি নই আমি।”

হলিউড ওয়াক অব ফেম যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ল্যান্ডমার্ক হিসেবে তালিকাভুক্ত। এর দেখভাল করে হলিউড চেম্বার অব কমার্স। তারা অবশ্য জানিয়েছে খুব শিগগিরই ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামাঙ্কিত ওই তারকা চিহ্ন পুনঃস্থাপন করা হবে।