হাসপাতালে যুদ্ধাপরাধ মামলার আসামি আহম্মদ আলীর মৃত্যু


285 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
হাসপাতালে যুদ্ধাপরাধ মামলার আসামি আহম্মদ আলীর মৃত্যু
অক্টোবর ২৯, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
একাত্তরের যুদ্ধাপরাধ মামলায় গ্রেপ্তার নেত্রকোণার আহম্মদ আলী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ফাঁড়ি পুলিশের পরিদর্শক মোজাম্মেল হক জানান, বুধবার রাত ১২টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৭০ বছর বয়সী ওই আসামির মৃত্যু হয়।

এর আগে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের কর্তৃপক্ষ আহম্মদ আলীকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে ৭০১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

পরিদর্শক মোজাম্মেল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সেপ্টেম্বর মাসেও একবার তিনি অসুস্থ হয়েছিলেন। সে সময় তাকে হাসপাতাল রেখে কয়েকদিন চিকিৎসাও দেওয়া হয়েছিল। ”

যুদ্ধাপরাধ মামলায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করলে গত ১২ অগাস্ট নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের সুনাইকান্দা গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে আহাম্মদ আলীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাকে ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠান।

একাত্তরে অপহরণ, হত্যা, লুটপাট, অগ্নিসংযোগের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ ছিল এই আসামির বিরুদ্ধে।

এর আগে গত ৪ সেপ্টেম্বর যুদ্ধাপরাধ মামলায় গ্রেপ্তার ময়মনসিংহের আমজাদ আলী (৯০) অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। চলতি বছরের জুলাই মাসে বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান যুদ্ধাপরাধের মামলায় অভিযুক্ত বাগেরহাটের আব্দুল লতিফ তালুকদার।

এছাড়া যুদ্ধাপরাধ মামলায় অভিযুক্ত কারাবন্দি জামায়াত নেতা এ কে এম ইউসুফ গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে মারা যান।