হেরে গিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে বিসিবি


313 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
হেরে গিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে বিসিবি
অক্টোবর ৮, ২০১৬ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

জাকির হুসাইন:
ইমরুল কায়েসের সেঞ্চুরি আর সাকিব আল হাসানের অর্ধশতকে দুর্দান্ত লড়াই করেও হেরে গেলো বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের দেয়া ৩১০ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ২৮৮
রানেই গুটিয়ে যায় স্বাগতিকদের  ইনিংস। ফলে
২১ রানে জয়ের সাথে তিন ম্যাচে
সিরিজে ১-০ তে লিড নিলো সফরকারী
ইংল্যান্ড।
টাইগারদের ইনিংসের শুরুটা ছিলো বেশ নড়বড়ে। আফগানিস্তান সিরিজে সর্বোচ্চ রানের মালিক তামিম ইকবাল মাত্র ১৭ রানেই জ্যাক বলের শিকারে পরিণত হয়ে সাজ ঘরে
ফেরেন। ১৮ রানের সময় সীমানার উপর থেকে সাব্বিরের নিশ্চিত ছয়কে দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণত করেন ডেভিড উইলি। অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ ২৫ রানে ফিরে যাওয়ার
পর সম্প্রতি নিজের ছায়া হয়ে থাকা মুশফিক আউট হন মাত্র ১২ রানে।
ইনিংসে নিয়মিত ভাবে উইকেট পরার পরেও একপ্রান্ত আগলে রেখেছিলেন ইমরুল কায়েস।
ফতুল্লায় প্রস্তুতি ম্যাচেও করেছিলেন
সেঞ্চুরি করে জাতীয় দলে জায়গা
পেয়ে যান আফগানিস্তান সিরিজে উপেক্ষিত ওপেনার ইমরুল কায়েস। তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে সুযোগের সদ্ব্যবহারটাও করলেন দারুণভাবেই। তবে ক্যরিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরিকে স্মরণীয় করে রাখতে পারলেন না দল হেরে যাওয়ায়।
এদিকে দারুণ অলরাউন্ড নৈপুণ্য দেখানো সাকিব ইংলিশদের দুটি উইকেট তুলে নেয়ার পাশাপাশি খেলেন ৫৫ বলে ৭৯ রানের এক
ঝড়ো ইনিংস। সাকিবকে দ্বিতীয় শিকারে পরিণত করার পরের বলেই নবাগত মোসাদ্দেককে ফেরান জ্যাক বল। পরের
ওভারে আদিল রশিদের বলে অধিনায়ক মাশরাফি
মাত্র ১ রানে আউট হয়ে গেলে চাপে
পড়ে যায় স্বাগতিকরা।
ওপেনার ইমরুল দলীয় ২৮০ রানের সময় আদিল রশিদের ওয়াইড বলে স্ট্যাম্পিং এর
ফাঁদে পড়লে হতাশা আরো ঘনীভূত হয়
স্বাগতিক ইনিংসে। এরপরেও ম্যাচ একেবারে হাতছাড়া হয়নি টাইগারদের। তবে তিন বোলার
শফিউল, মোশাররফ এবং তাসকিন শেষ পর্যন্ত জয়ের হাসিতে হাসাতে পারেনি বাংলাদেশকে।
মূলত ৫ উইকেট নিয়ে একাই বাংলাদেশকে হারিয়ে দিয়েছেন ইংলিশ বোলার জ্যাক বল।
এছাড়া ৪টি উইকেট নিয়েছেন আদিল রশিদ।এর আগে দুপুরে মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে
টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ইংলিশ অধিনায়ক জস বাটলার। বেন স্টোকসের সেঞ্চুরি এবং অভিষিক্ত বেন ডাকেন এবং বাটলারের অর্ধশতকে নির্ধারিত ৫০ ওভারে
৩০৯ রানের বড় সংগ্রহ দাড় করায় সফরকারীরা। স্বাগতিকদের হয়ে মাশরাফি, শফিউল এবং সাকিব
তুলে নেন দুটি করে উইকেট।

জেতা ম্যাচ হেরে যাওয়ায় গতকাল রাত্র থেকে সমালোচনার মুখে বিসিবি।  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে বিসিবি। তারা বলেন দেশ সেরা ফিনিশার নাসিরকে কেন বাদ দেওয়া হলো। বিসিবি কী পারতো না মোসাদ্দেক এর বদলে নাসির কে খেলাতে। প্রশ্ন উঠেছে ফর্মহীনতায় থাকা রুবেল কে নিয়ে। যে ব্যক্তি ৮ বছর পরে খেলা করছে তাকে ইংল্যান্ডের মতো একটা শক্তিশালী দলের বিপক্ষে খেলানোটি কতটা যুক্তি পূর্ণ সেটি বোধগম্য নয় ক্রিকেট প্রেমিদের । মোসাদ্দেক বা রুবেলের পরিবর্তে কী খেলানো যেতো না নাসিরের । আর এমন সব প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে এর কারনে বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে বিসিবি।