১৩০০ আসনের সিনেমা হলে দর্শক মাত্র ১০০ জন !


182 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
১৩০০ আসনের সিনেমা হলে দর্শক মাত্র ১০০ জন !
জুন ৭, ২০১৯ ফটো গ্যালারি বিনোদন
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

মানিকগঞ্জ জেলা শহরে অবস্থি নবীন সিনেমা হল। বর্তমানে ঢাকার অদূরে অবস্থিত পুরো মানিকগঞ্জ জেলায় সিনেমা দেখার এই একটি মাত্রই হল। যদিও আগে সিংগাইর থানায় প্যারাডাইস সিনামে হল নাম একটি সিনেমা হল ছিল। দশ বছর আগে সেটিও বন্ধ হয়ে গেছে। সেখানে এখন গড়ে উঠেছে আবাসিক এলাকা।

ঐতিহ্যবাহী মানিকগঞ্জের এই নবীন হলও এখন মৃতপ্রায়। সিনেমা সঙ্কট আর দর্শক খরায় বন্ধ হওয়ার উপক্রম হলটি। এবারের ঈদে এই হলে চলছে শাকিব-বুবলী জুটির ‘পাসওয়ার্ড’ সিনেমা। ছবিটি পরিচালনা করেছেন মালেক আফসারী।

নবীন হলটিতে ঈদের ছবি কেমন চলছে সমকাল অনলাইনের পক্ষ থেকে সরেজমিনে খোঁজ নেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার নবীন হলে গিয়ে দেখা যায় পাসওয়ার্ড ছবি দেখতে আসা দর্শকদের ছোট জটলা। তবে এই ভিড়ে সন্তুষ্ট নন হলের মালিক কামাল হোসেন। তিনি ১৫ বছর ধরে হলটির মালিকানা নিয়ে আছেন।

কামাল হোসেন সমকালকে বলেন, হলের কোন ব্যবসা নেই। শাকিব খানের সব ছবিও ব্যবসা করতে পারছে না। তবে তার ছবি দর্শক কিছুটা হলেও টানে। সর্বশেষ নবাবে ব্যবসা করেছি। এরপর আর না। এবার ব্যবসা করতেই পাসওয়ার্ড ছবি এনেছি। তবে ঈদের দিন দর্শকদের উপস্থিতিতে ছিলো না বললেই চলে। সেটা হয়তো বৃষ্টির কারণে। আশা করি, দর্শক বাড়বে। তবে এখনও বলতে পারছি না পুরো সপ্তাহ কেমন যাবে।

সারা বছর মুক্তিপ্রাপ্ত নতুন নতুন ছবিই প্রদর্শিত হয় এই নবীনে। সেটা যে নায়কেরই হোক। হলটির ম্যানেজার সজল। তিনি বলেন, ঈদের জন্য বাড়তি তিন শ’ চেয়ার ভাড়া এনেছি। কিন্তু আমাদের আগের চেয়ারই তো ফুল হচ্ছে না। বৃহস্পতিবার সকাল নয়টার শোতে ১৩ শ’ সিটের মধ্যে দর্শক ছিল ১০০ জনের মতো।

হলটি ঘুরে দেখলে চোখে পড়ে অনুন্নত পরিবেশ। বিনোদন নেওয়ার পর্যাপ্ত পরিবেশও নেই এতে। এমন পরিস্থিতিতে হলে দর্শক না আসার পেছনে পরিবেশও প্রভাব রাখছে।

তবে ম্যানেজার দাবি করে বলেন, আমাদের হলের পরিবেশ ভালো। পরিবার নিয়ে ছবি দেখার মত পরিবেশ পাবেন এখানে। তবে দর্শক বেশি আসলে হলের পরিবেশ আরও উন্নত করবো।