কলারোয়া সংবাদ ॥ সরকারি কর্মকর্তাদের বেতন স্কেলে আন্ত:ক্যাডার বৈষম্য নিরসনে মানববন্ধন


415 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কলারোয়া সংবাদ ॥ সরকারি কর্মকর্তাদের বেতন স্কেলে আন্ত:ক্যাডার বৈষম্য নিরসনে মানববন্ধন
অক্টোবর ২৮, ২০১৫ কলারোয়া ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

 

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া প্রতিনিধি :
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ৮ম জাতীয় বেতন স্কেলে আন্ত: ক্যাডার বৈষম্য নিরসন  ও মর্যাদা সমুন্নত রাখার দাবিতে মানব বন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। বুধবার বেলা ১২ থেকে কলারোয়া উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে ঘন্টাব্যাপি এ মানববন্ধন কর্মসূচিতে উপজেলা সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ যোগ দেন। প্রকৃচি-বিসিএস সমণ¦য় কমিটি (২৬ ক্যাডার), নন-ক্যাডার ও ফাংশনাল সার্ভিস, কলারোয়া, সাতক্ষীরার ব্যানারে আয়োজিত এই মানববন্ধন কর্মসূচির দাবিসমূহের মধ্যে রয়েছে কৃত্য পেশাভিত্তিক জনপ্রশাসন গড়ে তোলা, বেতনস্কেলে সিলেকশন প্রেড ও টাইমস্কেল পুনর্বহাল, উপজেলায় ইউএনও’র কর্তৃত্ব বাতিল, আন্ত:ক্যাডার বৈষম্য নিরসন, নিজস্ব ক্যাডার ও ফাংশনাল সার্ভিস বহির্ভূত সকল ধরনের প্রেষণাদেশ বাতিল ও সকল ক্যাডার, নন-ক্যাডার ও ফাংশনাল সার্ভিসে পদোন্নতির সমান সুযোগ প্রদান। উপজেলা কর্মকর্তাদের মধ্যে শান্তিপূর্ণ এ কর্মসূচিতে অংশ গ্রহণ করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা: তওহীদুর রহমান, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা: এসএম আতিকুজ্জামান, উপজেলা প্রকৌশলী আবেদুর রহমান, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন, সমাজসেবা কর্মকর্তা শেখ ফারুক হোসেন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা এসএম আজিজুল হক, কৃষি কর্মকর্তা মহসীন আলি, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নূরুন নাহার আক্তার, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সুলতানা জাহান, শিক্ষা কর্মকর্তা আকবার হোসেন, সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক হাবিবুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।
##
কলারোয়া কর্মসংসস্থান সৃষ্টিতে নগদ অর্থ প্রদান
কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে। বুধবার উপজেলা  সমাজসেবা অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের তালিকাভূক্ত সর্বমোট ১৭৪ জনের মাঝে ২৩ লাখ ১ হাজার ৫শ’ টাকা প্রদান করা হয়। উপজেলা সমাজসেবা অফিসে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অর্থ প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শেখ ফারুক হোসেন, নির্বাচন কর্মকর্তা ফারাজী বেনজীর আহম্মেদ, সমাজসেবার ফিল্ড সুপারভাইজার শেখ ছাবের আলি, আলহাজ্ব আব্দুস সামাদ, ডা: আব্দুল বারিক প্রমুখ।

কলারোয়ায় ইমামুল হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আকলিমা আটক

কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি,
সাতক্ষীরা কলারোয়ায় থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ইমামুল হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আকলিমাকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার রায়টা গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত মহিলা ওই গ্রামের মৃত ফাজেল বিশ্বাসের মেয়ে ও ঘর জামাই ওজিয়ার রহমানের স্ত্রী।  উল্লেখ্য,মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে উপজেলার রায়টা গ্রামের মৃত ইউসুফ বিশ্বাসের ছেলে আনিছুর রহমান তার পৈত্রিক সম্পত্তিতে কয়েকদিন আগে ২০টি মেহগনি গাছ রোপন করে। এতে একই গ্রামের প্রতিবেশী মৃত আছির বিশ্বাসের ছেলে আব্দুস সালাম ওরফে ন্যাটার জমির ফসল ক্ষতি হবে বলে আনিছুর রহমানের ওই লাগানো মেহগনি গাছসহ পাশের আরেক জমিতে কয়েক বছর আগে লাগানো গাছ কাটা শুরু করে ন্যাটা ও তার ছেলে বাবলু। এ সময়  ইউনুচের ছেলে ইমামুল ও ইকরামুল দুই ভাই  চাচা আনিছুর রহমানের লাগানো গাছ কাটতে বাধা দেওয়ায় ন্যাটা ও তার ছেলে বাবলু, মৃত ফাজেল বিশ্বাসের ছেলে আব্দুল হামিদ,হামিদের বোন জামাই অজিয়ার রহমান, বোন আকলিমা ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাঁশের লাটি দিয়ে ওই দুই ভাইকে এলোপাতাড়ী মারপিট শুরু করে। এক পর্যায়ে বাবলুর লাটির আঘাতে এমামুল ও ইকরামুল মাথা ফাটাসহ রক্তাক্ত গুরুতর জখম হয়। পরে স্থানীয় লোকজন আহত দুই ভাইকে উদ্ধার করে কলারোয়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আহত ইমামুলকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।
এ ঘটনায় কলারোয়া থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১৫/২০জনের নামে একটি হত্যা মামলা হয়। যার নং-৩৯,তারিখ-২৮/১০/১৫।  আটক আকলিমা ওই হত্যা মামলার এজাহারকৃত আসামী হওয়ায় তাকে আটক করা হয়েছে বলে থানার অফিসার ইনচার্জ তদন্ত শেখ শফিকুর রহমান জানান।
##

কলারোয়ায় পলাতক আসামি মকবুল গ্রেফতার

কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি,
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মকবুল হোসেন (৪০) নামে এক পলাতক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ওফাপুর মোড় থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সে উপজেলার ওফাপুর গ্রামের সানাউল্লাহর ছেলে।
উপজেলার সরসকাটি পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ তানভীর আহম্মেদ জানান, মঙ্গলবার রাতে তিনি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন, থানার সিআর মামলার পলাতক আসামি মকবুল ওফাপুর মোড়ে অবস্থান করছে। পরে ওই ফাড়ির এ,এসআই লিটন বিশ্বাস ওই স্থানে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে ।
বুধবার সকালে তাকে সাতক্ষীরা আদালতের মাধ্যমে  জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে বলে থানার ওসি (তদন্ত) শেখ শফিকুর রহমান জানান।
##

কলারোয়ায় সীমান্তে পাচারকালে সুপারীসহ বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার

কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরা কলারোয়া সীমান্তে পৃথকভাবে চোরাচালানীদের তাড়া করে ভারতে পাচার কালে বাংলাদেশী সুপারীসহ ভারতীয় বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ। তবে এ সময় বিজিবি সদস্যরা কাউকে আটক করতে পারেনি। মাদরা বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার জালালউদ্দিন জানান,মঙ্গলবার রাতে হাবিলদার বাসারাতের নেতৃত্বে সীমান্তবর্তী রাজপুর এলাকায় টহলকালে চোরাচালানীদের তাড়া করে ৭৫ প্যাকেট চাপাতা,  ৫০০পিচ মিনিপ্যাক  শ্যাম্পু উদ্ধার করে।
অপরদিকে হাবিলদার সিরাজের নেতৃত্বে উত্তর ভাদিয়ালি, সোনাবাড়িয়া এলাকায় একদল চোরাকারবারিদের তাড়া করে ১৮০ কেজি সোপারি, ভারতীয় ৬০০ পিচ ডিম ফেলে পালিয়ে গেলে এগুলো উদ্ধার করে । উদ্ধারকৃত মালামালের আনুমানিক মুল্যে ৯৯ হাজার  টাকা
###

কলারোয়ায় ৫ম বজলুর রহমান স্মৃতি ফুটবল টুর্ণামেন্টে সপ্তমগ্রাম রিক্রিয়েশন ক্লাব ফাইনালে

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ৫ম বজলুর রহমান স্মৃতি ফুটবল টুর্ণামেন্টের সেমিফাইনালে প্রথম খেলায় জয়লাভ করে সাতক্ষীরার সপ্তমগ্রাম রিক্রিয়েশন ক্লাব ফাইনাল খেলার গৌরব ার্জন করে। বুধবার বিকেলে কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুল ফুটবল মাঠে আয়োজিত এ খেলায় সাতক্ষীরা সপ্তমগ্রাম রিক্রিয়েশন ক্লাব ও মাধবকাটি পঞ্চমগ্রাম যুব সংঘের মধ্যে অনুষ্ঠিত এ খেলায় ৪—৩ গোলে সপ্তমগ্রাম জয়লাভ করেন।
এমআর ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমানের অর্থায়নে এবং কলারোয়া উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা ও পাবলিক ইন্সটিটিউটের উদ্যোগে এ টুর্ণামেন্টের ৫ম আসর অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এ ম্যাচে  নির্ধারিত সময়ে  উভয় দল ১টি করে গোল করায়  অবশেষে কর্তৃপক্ষ ট্রাইবেকারের সিদ্ধান্ত নেন। এতে সাতক্ষীরা সপ্তমগ্রাম রিক্রিয়েশন ক্লাব ৪—-৩ গোলে মাধবকাটি পঞ্চমগ্রাম যুব সংঘকে পরাজিত করে।
খেলাটি পরিচালনা করেন মাসউদ পারভেজ মিলন, মিয়া.ফারুক হোসেন স্বপন,  মোশারফ হোসেন ও সাজু হাওলাদার।
ধারাভাষ্যে ছিলেন প্রভাষক রফিকুল ইসলাম, মাস্টার শেখ শাহজাহান আলী শাহীন,এবিএম সিদ্দিক, আব্দুর ওহাব মামুন।
বিপুল দর্শক সমাগমে খেলাটি অন্যদের মধ্যে উপভোগ করেন কলারোয়া পাবলিক ইন্সটিটিউটের সাধারণ সম্পাদক এড.শেখ কামাল রেজা, ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জাহিদুর রহমান খাঁন চৌধুরী, কাজীরহাট করেজের অধ্যক্ষ এস এম সহিদুল আলম,সাংবাদিক কে এম আনিছুর রহমান,রাশেদুল হাসান কামরুল, প্রধান শিক্ষক আব্দুর রব, আব্দুর রহিম বাবু, অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বনি আমিন, রমজান আলী,ইউনুচ আলী, শেখ শহিদুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষক বদরুজ্জামান বিপ্লব, ডা.শামসুর রহমান,বিশিষ্ট গায়ক প্রভাষক ভোলানাথ মন্ডল, প্রমুখ।
আজ বৃহস্পতিবার একই মাঠে সেমিফাইনাল  ২য় খেলায়  মুখোমুখি হবে কলারোয়া ফুটবল একাডেমি  বনাম বাঁকড়া কপোতাক্ষ ক্রীড়াচক্র।