নির্যাতিত মানুষের পক্ষে নিরন্তন সংগ্রাম করছি : চেয়ারম্যান প্রার্থী লাভলু


344 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
নির্যাতিত মানুষের পক্ষে নিরন্তন সংগ্রাম করছি : চেয়ারম্যান প্রার্থী লাভলু
নভেম্বর ২৩, ২০১৫ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

 

নাজমুল হক/আ.কে.বাপ্পা :
দেবহাটা উপজেলার ৪নং নওয়াপাড়া ইউপি নির্বাচনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, জাতীয় পুরষ্কার প্রাপ্ত বিশিষ্ট চিংড়ি চাষী মাহমুদুল হক লাভলু ইউপি নির্বাচনে প্রচারণা শুরু করেছে।

আসন্ন ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী এই প্রার্থী ভয়েস অব সাতক্ষীরার সাথে একান্ত সাক্ষাতকারে বলেছেন, শাসন নয় সেবক হতে চাই।

আলোকিত মডেল ইউনিয়ন পরিষদ বিনির্মাণের লক্ষ্যে আজীবন ইউনিয়নবাসীর সেবা করতে চাই। ধনী-গরীব, জাতি, ধর্ম, বর্ণ ভেদাভেদ ভুলে আর্ত মানবতার সেবায় মানুষের সেবার ব্রুত নিয়ে ইউনিয়নবাসীর উন্নয়নে পরিকল্পিত গ্রাম গড়ে তুলব। স্কুল জীবনে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে প্রবেশ করা এই তরুণ রাজনীতিবিধ বলেন, এলাকায় বিশুদ্ধ পানির অভাব আছে। ফলে মানুষ বিশুদ্ধ পানি পান করতে পারে না। অনেক ক্ষেত্রে পানি অনেক দূর থেকে পানি সংগ্রহ করতে হয়। আমি নির্বাচিত হলে হাদিপুর থেকে নওয়াপাড়া পর্যন্ত পানির লাইন স্থাপন করবো। জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত সফল এই মৎস্য ব্যবসায়ী বলেন, ইউনিয়নের শতভাগ মানুষ বিদ্যুতের আওতায় আসে নি। ফলে গ্রামে সন্ধ্যার পরে ভুতভুতে অন্ধকার নিমজ্জিত হয়। তিনি নির্বাচিত হলে সরকারের বিদ্যুৎ বিভাগের সহযোগিতায় গ্রামে শতভাগ মানুষের বিদ্যুৎ সেবা পৌছে দেওয়ার ব্যবস্থা করবেন। দেবহাটা উপজেলা ও জেলার এই শ্রেষ্ট মৎস্য চাষী আরো বলেন,

ইউনিয়ন পরিষদের ট্রেড লাইন্সেস, জন্ম নিবন্ধন, প্রত্যয়ন পত্র, খাজনা, ট্যাক্স, পানির বিল প্রভৃতি দিয়ে গিয়ে পদে পদে হয়রানি ও বিড়ম্বনার শিকার হতে হয় বলে বিভিন্ন সময় অভিযোগ আছে। ভিজিএফ কার্ড, বয়স্ক ভাতা, ভিজিডি কার্ড প্রভৃতি বিতরণ নিয়ে বিভিন্ন সময় দলীয়করণ ও আত্মীয়করণের অভিযোগ উঠে। তিনি বলেন, আমি নির্বাচিত হলে ইউনিয়ন পরিষদকে দুর্নীতিমুক্ত ঘোষনা করবো। পরিষদের প্রত্যেক কাজে স্থানীয়দের মতামত নিয়ে কাজ করবো।
সরকার সমার্থিত দলের এই নেতা আরো বলেন, যেহেতু আওয়ামী লীগ বর্তমানে ক্ষমতায় রয়েছে। তিনি নির্বাচিত হলে সরকার এখানে বেশি বেশি উন্নয়ন করবে। বর্তমানে রাস্তা-ঘাটের অবস্থা খুব খারাপ। ইউনিয়নের কাচা ও আধাপাকা রাস্তাগুলো পাকা করণের উদ্যোগ দিন।

মাহমুদুল হক লাভলু দেবহাটার নওয়াপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ থেকে বিএ পাশ করে চাকরির পিছনে না ছুটে মানুষের কর্মসংস্থান ও দেশের অর্থনীতির চাকা সচল করতে চিংড়ি চাষে শুরু করেন। সেখানে পেয়েছেন সাফল্য। ২০০৫ সালে দেবহাটা উপজেলা, ২০০৮ সালে জেলার শ্রেষ্ট চিংড়ি চাষী হিসেবে পুরস্কার লাভ করে। ২০১০ সালে আসে জীবনের সবচেয়ে বড় সাফল্য। এ বছর তিনি জাতীয় চিংড়ি চাষীর পুরস্কার (স্বর্ণ পদক) লাভ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে। একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার ২১ স্বর্ণ পদকে ভূষিত হয় তিনি। পরে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন থেকেও সংবর্ধনা দেওয়া তাকে। অর্থ মন্ত্রীর নিকট থেকে পুরস্কার প্রাপ্ত এই নেতা নলতা আহসানিয়া শাখা মিশনের সাধারণ সম্পাদক, নওয়াপাড়া আলিম সিনিয়র মাদ্রাসার সভাপতিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সংস্কৃতি সংগঠনের সাথে সংম্পৃক্ত আছেন। তিনি গরীব, অসহায় ও নির্যাতিত মানুষের জন্য নিরন্তন সংগ্রাম করে যাচ্ছেন বলেও জানান। তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা লাভলু আসন্ন ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোয়ন নিয়ে নির্বাচনে বিজয়ী হতে সকলের দোয়া, সমর্থন প্রত্যাশা করে।