ভোট বর্জনের ঘোষণা ২৫ মেয়র প্রার্থীর


313 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ভোট বর্জনের ঘোষণা ২৫ মেয়র প্রার্থীর
ডিসেম্বর ৩১, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

 

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
পৌরসভা নির্বাচনে ভোট কারচুপি, হামলা, কেন্দ্র দখল, এজেন্টদের বের করে দেওয়া ও জোর করে ব্যালটে সিল মারার অভিযোগে বিভিন্ন স্থানে ২৫ মেয়র প্রার্থী ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। এর মধ্যে নড়াইলের কালিয়া পৌরসভায় কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে খোদ আওয়ামী লীগ প্রার্থী ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন। এ ছাড়া নড়াইল ও কালিয়ার দুই বিএনপি প্রার্থী, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী, টাঙ্গাইলের গোপালপুর ও মধুপুরে দুই বিএনপি প্রার্থী, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় বিএনপিসহ তিন মেয়র প্রার্থী, রাজবাড়ীর পাংশা ও ঈশ্বরদীতে বিএনপির

মেয়র প্রার্থী, কুষ্টিয়ার খোকসা ও কুমারখালীতে ৪ মেয়র প্রার্থী, লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে বিএনপি প্রার্থী, রামগতিতে বিএনপি ও জাপা প্রার্থী, পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় জাপা প্রার্থী, ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে বিএনপি প্রার্থী, ভৈরবে বিএনপি প্রার্থী ও জয়পুরহাটের কালাইয়ে বিএনপি, জাপাসহ ৩ প্রার্থী ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন। প্রতিনিধি ও সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর :
নড়াইল :জেলার কালিয়া পৌরসভায় অনিয়ম ও ভোট কারচুপির অভিযোগে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান হীরা ও বিএনপির প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জমান মিলু নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। হীরা অভিযোগ করেন, নড়াইল-১ আসনের এমপি কবিরুল হক মুক্তির লোকজন ভোটদানে বাধা, ভয়ভীতি, ভোটকেন্দ্র দখল করায় তিনি ভোট বর্জন করেন। এদিকে নড়াইল পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সোহরাব হোসেন ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন।
শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) :পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভোট ডাকাতির অভিযোগ এনে বিদ্রোহী প্রার্থী ভিপি রহিম নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। তার অভিযোগ, আওয়ামী লীগ প্রার্থী হালিমুল হক মিরুর লোকজন ২১টি কেন্দ্র দখল করে ভোট ডাকাতি করে।

গাইবান্ধা :জেলার গোবিন্দগঞ্জ পৌর নির্বাচনে ভোট কারচুপি, কেন্দ্রে হামলা ও সংঘর্ষের অভিযোগ এনে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী আখতার হোসেন জুয়েল নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন।
আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) :নির্বাচন বর্জন করেছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী হাজি মো. মন্তাজ মিয়া। একই অভিযোগে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট সোহেল ভুঞা ও সৈয়দ মশিউর রহমান বাবুল ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।
ঈশ্বরদী :নির্বাচন বর্জন করেছেন বিএনপি মেয়র প্রার্থী মকলেছুর রহমান বাবলু। পৌর বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন তিনি।
রাজবাড়ী :পাংশা পৌরসভায় ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্র্থী চাঁদ আলী খান। পাংশা উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে চাঁদ আলী খান সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন।
লক্ষ্মীপুর : লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ১২টি কেন্দ্র থেকে এজেন্টদের বের করে ব্যালট ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ভোট বর্জন করেন বিএনপি প্রার্থী এবিএম জিলানী। রামগতিতে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন বিএনপি প্রার্থী সাহেদ আলী পটু ও জাপা প্রার্থী আজাদ উদ্দিন চৌধুরী।
টাঙ্গাইল :জেলার গোপালপুরে বিএনপি প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম রুবেল ও মধুপুরে বিএনপি প্রার্থী শহিদুল ইসলাম ভোট বর্জন করেন। দু’জনেই সংবাদ সম্মেলন করে কেন্দ্র দখলের অভিযোগে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন ।
কুষ্টিয়া :জেলার খোকসা ও কুমারখালীতে চার মেয়র প্রার্থী নির্বাচন বর্জন করেছেন। কুমারখালী পৌরসভায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী তারিকুল হক তারিক, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জাকারিয়া জেমস ও জাপা প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ এবং খোকসায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আলাউদ্দিন পিন্টু সংবাদ সম্মেলন করে ভোট বর্জন করেন।

পটুয়াখালী :জেলার কলাপাড়ায় ভোট বর্জন করেছেন জাপা প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হাওলাদার। তিনি দুপুর ১টায় সংবাদ সম্মেলন করে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।
কালাই (জয়পুরহাট) :পৌরসভা নির্বাচনে কেন্দ্র দখল, এজেন্টদের মারধর এবং ভোট ডাকাতির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিন মেয়র প্রার্থী নির্বাচন বর্জন করেছেন। তারা হলেন_ বিএনপি মেয়র প্রার্থী সাজ্জাদুর রহমান তালুকদার সোহেল, বিএনপির বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী আনিছুর রহমান তালুকদার এবং জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী প্রভাষক আমিনুল ইসলাম।

ঝিনাইদহ :ভোট কারচুপি ও কেন্দ্র দখল করে ব্যালটে সিল মারার অভিযোগ এনে হরিণাকুণ্ডু পৌরসভার বিএনপি মেয়র প্রার্থী জিন্নাতুল হক ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।
ভৈরব :ভৈরবে পৌর নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী হাজি মো. শাহিন ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে নির্বাচন বয়কট করেন। তিনি বিএনপি নেতা শরিফুল আলমের ভৈরবের কমলপুর ডাকবাংলোয় সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন।
নলছিটি (ঝালকাঠি) :ঝালকাঠির নলছিটি পৌর নির্বাচনে তিন কাউন্সিলর প্রার্থী ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। তারা হলেন_ আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী দেলোয়ার হোসেন, মোশারফ হোসেন এবং বিএনপি সমর্থিত আলতাফ হোসেন তালুকদার।