মাহ্ফুজ আনামের বিরুদ্ধে আরও ৫ মামলা


387 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মাহ্ফুজ আনামের বিরুদ্ধে আরও ৫ মামলা
ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৬ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
মাহ্ফুজ আনামইংরেজি দৈনিক ‘দ্য ডেইলি স্টার’-এর সম্পাদক মাহ্‌ফুজ আনামের বিরুদ্ধে আজ মঙ্গলবার নতুন করে আরও পাঁচটি মামলা হয়েছে। পাবনা, নারায়ণগঞ্জ, সাতক্ষীরা, কিশোরগঞ্জ ও মানিকগঞ্জে মামলাগুলো করা হয়। এর মধ্যে তিনটি মামলায় ১১৫ কোটি টাকার মানহানির অভিযোগ আনা হয়।
আজ দায়ের হওয়া পাঁচটি মামলার সবগুলোতে মানহানির অভিযোগ আনা হয়েছে। পাশাপাশি এর মধ্যে দুটিতে রাষ্ট্রদ্রোহেরও অভিযোগ আনা হয়েছে।
মাহ্‌ফুজ আনামের বিরুদ্ধে গতকাল সোমবার ১৭ জেলায় বিচারিক হাকিম আদালতে ১৭টি মামলা হয়। এর আগে গত রোববার বিভিন্ন স্থানে ১৩টি এবং তারও আগে পাঁচটি মামলা হয়। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ডেইলি স্টার সম্পাদকের বিরুদ্ধে ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় ৪০টি মামলা হলো। মামলাগুলোর বাদী ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ, এর অঙ্গ-সহযোগী ও সমমনা সংগঠনের নেতা ও আইনজীবীরা। এসব মামলার কোনোটা মানহানির অভিযোগে, কোনোটা রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে, আবার কোথাও কোথাও মানহানির পাশাপাশি রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে।

পাবনা: আমলি আদালত-১-এ মাহ্ফুজ আনামের বিরুদ্ধে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি রেজাউল রহিম বাদী হয়ে মানহানির মামলা করেছেন। আদালত মামলাটি গ্রহণ করে সদর থানা-পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ: এক-এগারোর সময় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশনের অভিযোগ এনে নারায়ণগঞ্জে মাহ্‌ফুজ আনামের বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করা হয়েছে। দুপুরে নারায়ণগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম সাইদুজ্জামান শরীফের আদালতে মামলাটি করেন জেলা আইনজীবী সমিতির যুগ্ম সম্পাদক মুহাম্মদ মহসীন মিঞা।

সাতক্ষীরা: মাহ্‌ফুজ আনামের বিরুদ্ধে মানহানির পাশাপাশি রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ এনে জেলার অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম মহিবুল হাসানের আদালতে মামলাটি করেন আইনজীবী শাহেদুজ্জামান শাহেদ। তিনি জেলা তরুণ লীগের সাধারণ সম্পাদক। অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি সৈয়দ জিয়াউর রহমান জানান, আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন এবং বিষয়টি আদেশের জন্য রেখেছেন।

কিশোরগঞ্জ: মাহ্‌ফুজ আনামের বিরুদ্ধে মানহানির পাশাপাশি রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে আজ জেলার আমলি আদালত-১-এ মামলাটি করেন হেলালুজ্জামান হেলাল। তিনি জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি। মামলায় ১০০ কোটি টাকার মানহানি ও রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে। বাদীর আইনজীবী হুমায়ুন কবির বলেন, মামলাটি আমলে নিয়েছেন জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আলাউল আকবর। আগামী ৯ মার্চ তিনি সংশ্লিষ্ট সংবাদের কপি আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

মানিকগঞ্জ : জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদরুল ইসলাম বাদী হয়ে জেলা জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের আদালতে মাহ্‌ফুজ আনামের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন। মামলায় পাঁচ কোটি টাকার মানহানির অভিযোগ আনা হয়েছে। মামলা পরিচালনাকারী আইনজীবী আবদুল হক জানান, বিচারক মো. আবদুল হাই মামলাটি আমলে নিয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) তদন্তের নির্দেশ দেন। আগামী ২০ মার্চ তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দিতে বলা হয়েছে।

মাহ্‌ফুজ আনামের বিরুদ্ধে করা বেশির ভাগ মামলার অভিযোগ প্রায় একই রকম—এক-এগারোর সময় একটি গোয়েন্দা সংস্থার নির্দেশনা বাস্তবায়নে গণতন্ত্রবিরোধী শক্তিকে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করতে এবং আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিতে ‘ডেইলি স্টার’-এর সম্পাদক তাঁর পত্রিকায় মিথ্যা, বিকৃত ও মানহানিকর তথ্য প্রকাশ করেছেন। ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের টক শোতে এক-এগারোর সময় সংবাদ প্রকাশের স্বাধীনতা ও গণমাধ্যমের বিচ্যুতির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে মাহ্‌ফুজ আনাম তাঁর পত্রিকায়ও এমন ত্রুটি-বিচ্যুতি হয়েছিল বলে স্বীকার করেন। পরদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে এবং তাঁর তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি-বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় নিজের ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে ‘ডেইলি স্টার’-এর সম্পাদকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ তুলে বিচার চান। এক দিন পর ৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে কয়েকজন সাংসদ ‘ডেইলি স্টার’ বন্ধ করা এবং মাহ্‌ফুজ আনামের পদত্যাগ ও বিচার দাবি করেন। এর পরদিন থেকেই তাঁর বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা দেওয়া হচ্ছে।