সাতক্ষীরায় ৩ দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ


191 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় ৩ দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ
জানুয়ারি ১১, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

মাহফিজুল ইসলাম আককাজ :

‘উন্নয়নের গণতন্ত্র, শেখ হাসিনার মূলমন্ত্র’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সাতক্ষীরায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে জেলায় ৩দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলা ২০১৭ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার বিকালে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সাতক্ষীরা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা সদর-০২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি।

প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এমপি রবি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কার্যক্রম প্রান্তিক পর্যায়ে তুলে ধরার পাশাপাশি জনগণকে সরকারের উন্নয়ন কাজে সম্পৃক্ত করণ ও সরকারের মুখপাত্র হিসেবে প্রচারণায় অংশগ্রহন হলো মেলার উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য।

বাঙালী জাতি আজ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। কোন ষড়যন্ত্র এ উন্নয়নের অগ্রযাত্রা রুখতে পারবেনা। বাংলাদেশের উন্নয়ন এখন বিশ্বের দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার মো. আলতাফ হোসেন, অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক এ.এন.এম মঈনুল ইসলাম প্রমুখ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এ.এফ.এম এহতেশামূল হক, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ ফারুক আহমেদ, অতিরিক্ত প্রশাসক (রাজস্ব) অরুন কুমার মন্ডল, এন.এস.আই’য়ের উপ-পরিচালক মোজাম্মেল হক, সিভিল সার্জন ডাঃ

উৎপল কুমার দেবনাথ, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নূর হোসেন সজল, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি এ্যাড. আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) এস.এম আব্দুল্লাহ আল-মামুন, জেলা ত্রান ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আফসানা কাওসার, বি.আর.টিএ’র সাতক্ষীরা সার্কেলের সহকারি পরিচালক তানভীর আহমেদ চৌধুরী, জেলা

সমাজসেবা অধিদফতরের উপ-পরিচালক দেবাশিস সরদার, এন.এস.আইয়ে’র সিনিয়র সহকারি পরিচালক আনিসুজ্জামান, জেলা তথ্য অফিসার শাহনেওয়াজ করিম, সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. জালাল উদ্দিন, জেলা শ্রমিকলীগ নেতা শেখ

তৌহিদুর রহমান ডাবলু, নবারুণ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আমিনুর রহমান উল্লাস, কাউন্সিলর জ্যোৎন্সা আরা, ফারহা দিবা খান সাথি, শেখ শফিক উদ- দৌল্লা সাগর, জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সদস্য সচিব শেখ মুসফিকুর

রহমান মিল্টনসহ সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান প্রধান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। আলোচনা সভা শেষে মনোঙ্গ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। মেলায় সেরা স্টল হিসেবে প্রথম পুরস্কার পেয়েছে ব্যাংকার্স

ফোরাম, দ্বিতীয় পুরস্কার পেয়েছে যৌথভাবে সদর উপজেলা পরিষদ ও কৃষি বিভাগ এবং তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে যৌথভাবে বি.আর.টি.এ সাতক্ষীরা ও স্বাস্থ্য বিভাগ। সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নূর হোসেন সজল।
##
কে এম আনিছুর রহমান পুরস্কার বিতরেণের মধ্য দিয়ে কলারোয়ায় ৩দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলা শেষ হয়েছে। বুধবার বিকালে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা চত্ত্বরে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণের মধ্যদিয়ে উন্নয়ন মেলা শেষ হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায়ের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের কমান্ডার গোলাম মোস্তফা,কলারোয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি শিক্ষক দীপক শেঠ, ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ইমরান হোসেন,উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা.এ এস এম আতিকুজ্জামান,কৃষি কর্মকর্তা মহসিন আলী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সুলতানা জাহান, সমবায় কর্মকর্তা নওশের আলী, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা সঞ্জীব কুমার দাস,মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আকবার হোসেন,কলারোয়া সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক মনোতোষ বাবু প্রমুখ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নুরুন নাহার আক্তার, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের ব্যবস্থাক আনোয়ার হোসেন, সাংবাদিক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু, কে এম আনিছুর রহমান, রাশেদুল হাসান কামরুল, আরিফ মাহমুদ এম এ সাজেদ সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আলমগীর হোসেন, একাডেমিক সুপারভাইজারসহ উপজেলার সকল দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী বৃন্দ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শেখ ফারুক হোসেন। আলোচনা শেষে মেলায় অংশগ্রহনকারী ৩৬টি স্টল কর্তৃপক্ষকে পুরস্কৃত করা হয়।
##