খেলা-ধুলা ও আনন্দ উল্লাসের মাধ্যমে ডি.বি. ইউনাইটেড হাইস্কুলে পালিত হল মহান স্বাধীনতা দিবস


345 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
খেলা-ধুলা ও আনন্দ উল্লাসের মাধ্যমে ডি.বি. ইউনাইটেড হাইস্কুলে পালিত হল মহান স্বাধীনতা দিবস
মার্চ ২৮, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

মোঃ ফয়জুল হক (বাবু) ::
২৬ মার্চ, মুক্তিযুদ্ধের সূচনার গৌরবময় দিন—মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বিশ্বের বুকে স্বাধীন অস্তিত্বের জন্য বাঙ্গালী জাতী পাকিস্তানি ঘাতক সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে এবং দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে পূর্ব পাকিস্তান স্বাধীন করে বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটায়। জাতি আজ গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করবে দেশের জন্য জীবন উৎসর্গ করা বীর সন্তানদের। তাই এই দিনটিকে গভীরভাবে স্মরণ করে আনান্দমুখর পরিবেশে ডি.বি. ইউনাইটেড হাইস্কুলে পালিত হল বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগিতা। প্রধান শিক্ষক মোঃ মমিনুর রহমানের সভাপতিত্ত্বে সূর্যদয়ের পরে জাতীয় সঙ্গিতের মাধ্যমে শুরু হয় দিনের কার্যক্রম। অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন অবসর প্রাপ্ত ওয়ারেন্ট অফিসার মোঃ শুকুর আলী। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা স.ম. শহীদুল ইসলাম, সভাপতি কার্যনিবাহী কমিটি ডি.বি. ইউনাইটেড হাইস্কুল ও চেয়ারম্যান ৯নং ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ। সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, একাত্তরের ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। গ্রেপ্তারের আগে অবিসংবাদিত এই নেতা শত্রুসেনাদের বিতাড়িত করতে শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে লড়াই করতে দেশবাসীকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। তিনি বলেন আমি নিজেও একজন মুক্তিযোদ্ধা। আমরা সকলেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সারা দিয়ে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পরেছিলাম। তিনি আরও বলেন যার জন্ম না হলে হয়তো আজ আমরা এই স্বাধীন রাষ্ট্র পেতাম না। তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আমরা পেয়েছি এই সুন্দর লাল-সবুজের দেশ বাংলাদেশ। আর তার এই স্বপ্নের দেশটিকে আরও সুন্দর ও বাস্তবরূপ দান করার জন্য তারই ‍সুযোগ্য কন্য মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জনান। প্রধান অতিথি তার বক্তব্য শেষে শেষে বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগীতার শুভ উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের পরে আনান্দ ঘন পরিবেশে দিনভর খেলাধুলা করে বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকেরা।