সাতক্ষীরায় পাট চাষে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সংশয়


131 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় পাট চাষে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সংশয়
এপ্রিল ২৯, ২০১৭ কৃষি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল হক ::
চলতি মৌসুমে সাতক্ষীরায় ১১ হাজার ৬৩০ হেক্টর জমিতে পাট চাষ আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাতের অভাব, আর নিম্মমানের বীজের কারণে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। জেলার লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ৭ হাজার ৩৪৫ হেক্টর জমিতে আবাদ হয়েছে। তবে জেলার কৃষকরা বৃষ্টির জন্য অপেক্ষা না করে পানি সেচ দিয়ে পাটের আবাদ করছে। কৃষকরা পাট চাষে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে মাঠে।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, জেলার সদর উপজেলায় ৪ হাজার ৭৮০ হেক্টর জমি আবাদের লক্ষ্যমাত্রায় চাষ হয়েছে ৪ হাজার ৩৫০ হেক্টর জমিতে। কলারোয়া উপজেলায় ৩ হাজার ৯০ হেক্টর জমি আবাদের লক্ষ্যমাত্রায় চাষ হয়েছে ১ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে। তালা উপজেলায় ৩ হাজার ৫০ হেক্টর জমি আবাদের লক্ষ্যমাত্রায় চাষ হয়েছে ১ হাজার ৩৫০ হেক্টর জমিতে। দেবহাটা উপজেলায় ১৮৫ হেক্টর জমি আবাদের লক্ষ্যমাত্রায় চাষ হয়েছে ৩৫ হেক্টর জমিতে। আশাশুনি উপজেলায় ১২০ হেক্টর জমি আবাদের লক্ষ্যমাত্রায় চাষ হয়েছে ১১০ হেক্টর জমিতে। শ্যামনগর উপজেলায় ০১ হেক্টর জমি আবাদের লক্ষ্যমাত্রায় কোন আবাদ হয়নি। এবং কালিগঞ্জ উপজেলায় ১৮৫ হেক্টর জমি আবাদের লক্ষ্যমাত্রায় চাষ হয়েছে ৩৫ হেক্টর জমিতে চাষ হয়েছে।
কৃষি কর্মকর্তারা জানান, এখানে মৌসুমের শুরুতে বৈরি আবাহাওয়ার কারণে বেগ পেতে হয় চাষিদের। প্রচন্ড গরমের কারণে আবাদ কিছুটা বিলম্বে হওয়ায় লক্ষ্যমাত্রা পুরোপুরি অর্জন সম্ভব হয়নি। তবে চাষিরা যেভাবে নিরলস পরিশ্রমের মাধ্যমে মাঠে পরিচর্যায় ব্যস্ত তাতে উৎপাদনের চূড়ান্তভাবে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে কৃষি কর্মকর্তারা আশা প্রকাশ করেন।
এদিকে পাট চাষিরা জানিয়েছেন, বর্তমানে তরা পাটের চারার পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। কলারোয়ার দেয়াড়ার পাট চাষি আজগর আলী, হারুন মিয়া জানান, প্রতি বছরই তাদের এখানে প্রচুর পরিমাণে পাট উৎপাদন হয়। তাই এবারো প্রত্যেকে প্রায় ২ বিঘা করে জমিতে পাটের আবাদ করছেন। আশা করছেন অধিক উৎপাদনের মাধ্যমে তারা লাভবান হবেন।