আশাশুনিতে প্রতিপক্ষ কর্তৃক এক ব্যক্তির বসত বাড়ি ভাংচুর !


174 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly
আশাশুনিতে প্রতিপক্ষ কর্তৃক এক ব্যক্তির বসত বাড়ি ভাংচুর !
জুলাই ১৫, ২০১৭ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ::
সাতক্ষীরায় আদালতের ১৪৫ ধারা জারি থাকা অবস্থায় প্রতিপক্ষরা এক ব্যক্তির বসতবাড়ি ভাংচুর করে সেখানে স্থাপনা নির্মাণ করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন আশাশুনি উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামের হবিবর মোল্যার ছেলে বিল্লাল হোসেন।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বিল্লাল হোসেন বলেন, আশাশুনি উপজেলার কল্যাণপুর মৌজার এসএ ৫৭ নং খতিয়ান ও জেএল নং ১৪৯ এর ৮৫৮ দাগে মোট ১০ শতক জমি তিনি তার মায়ের কাছ থেকে ক্রয় করে সেখানে ঘরবাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসছেন।  কিন্তু কল্যাণপুর গ্রামের তালেব মোল্যার ছেলে রফি মোল্যা, সামাদ মোল্যার ছেলে আশরাফুল ও সাইফুল মোল্যা, মৃত তালেব মোল্যার ছেলে নজরুল মোল্যা, সামাদ মোল্যা ও রেজাউল মোল্যা অন্যায়ভাবে তাকে (বিল্লাল) তার ভিটাবাড়ি থেকে উচ্ছেদ করতে চায়। এজন্য তারা তাকেসহ তার বাচ্চাদের মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে আসছিল। জমি দখলের জন্য সন্ত্রাসীদের দিয়ে কয়েকবার তার বড়িতে হামলাও চালিয়েছে তারা। উলে¬খিতরা বিভিন্ন মামলার আসামী ও খুবই দুষ্ট প্রকৃতির হওয়ায় তাদের ভয়ে তিনি বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। এসব ঘটনায় গত ১২ জুলাই তিনি আদালতে ১৪৫ ধারায় একটি ফৌজদারি মামলা  করেন।
তিনি অভিযোগ করে বলেন,  ১৪৫ ধারা জারি থাকা অবস্থায় উল্লেখিত রফি গংরা ১৫ জুলাই শনিবার আমার বসতঘর ভাংচুর করে সেখানে প্রাচীর নির্মাণ কাজ শুরু করে। আমার স্ত্রী বাধা দিতে গেলে তারা তাকে বেদম মারপিট করে কাজ অব্যহত রাখে। তারা তার বাড়ি থেকে ৫ হাজার ইট, সিলেকশন বালি, দু’টি স্বর্ণের চেইন ও নগদ ২০ হাজার টাকাসহ দেড় লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যায়। একই সাথে একটি সুটকেচে থাকা জমির দলিলপত্র ও নিয়ে যায় তারা। তিনি তার বাবার একমাত্র সন্তান হওয়ায় নানাভাবে তাকে হয়রানি করে চলেছে। এসব ঘটনায় তিনি যাতে আইনগত ও আদালতের সহযোগিতা পেতে পারেন তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।