সাতক্ষীরা পৌরসভার ৩০ রাস্তার উপরে পানি !


360 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরা পৌরসভার ৩০ রাস্তার উপরে পানি !
অক্টোবর ২২, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল হক/সেলিম হোসেন ::
টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরা পৌরসভার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বাড়ির আঙ্গিনায় পানি প্রবেশ করায় পৌরসভার অন্তত ৫ হাজার মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় আছে। শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডের ৩০টি রাস্তার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে কার্যত গৃহবন্দি হয়ে পড়েছে ঐ সকল এলাকার মানুষজন। শনিবার পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি পানিবন্দি এলাকা পরিদর্শন করেছেন। স্থানীয়দের অভিযোগ, অপর্যপ্ত ড্রেনেজ ও পানি নিষ্কাশনের পথ না থাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। তবে পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি জানান, পানি দ্রুত নিষ্কাশনের জন্য সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।
সূত্র জানায়, কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে সাতক্ষীরা পৌরবাসী। বৃষ্টির কারণে চরম দুর্ভোগে পোহাতে হচ্ছে পৌর এলাকার জনগনের। তলিয়ে গেছে শহর সহ পার্শ্ববর্তী মৎস্যঘের ও ফসলি জমি। শনিবার সরেজমিনে বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, শহরের পলাশপোল বৌ বাজার, চায়না বাংলা এলাকা, জজ কোর্ট এলাকা, সম্রাট প্লাজার সামনের রাস্তাগুলো পানিতে তলিয়ে গেছে। মানুষের ঘরের ভিতরে পানি চলে গেছে। যেটা প্রথম শ্রেনীর পৌর সভা হিসাবে সাতক্ষীরায় নাগরিক সুবিধা নেই বলে অনেকে অভিযোগ করেন। এছাড়া পার্শ্ববর্তী মাছখোলা, ইটাগাছা, কামালনগরসহ পৌর এলাকার নিম্নাঞ্চল পানির নিচে তলিয়ে গেছে। অন্যদিকে, শহরের উত্তর কাটিয়ার বৌ বাজার, কাটিয়া মাঠপাড়া, বদ্দিপুর কলোনী, মেহেদীবাগ, জজকোর্টের পিছনের অংশ, কামালনগরের বিভিন্ন সড়ক পানিতে তলিয়ে গেছে। এ সব এলাকার কিছু কিছু বাড়িতে পানি প্রবেশ করেছে। অন্যদিকে, রথখোলা বিল, পুরাতন সাতক্ষীরাও পানি প্রবেশ করেছে। ফলে বাড়ির লোকজন পানি পার হয়ে বাহিরে যেতে পারছে না।
শহরের পলাশপোলের আসাদুল ইসলাম বলেন, পানি সরবরাহের যথাযথ ব্যবস্থা না থাকায় পৌর এলাকায় এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। পৌর কতৃপক্ষ যদি উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতো তাহলে আমাদেরকে এ ধরনের চরম দুভোর্গে পড়তে হতো না। তারা শুধু নির্বাচনের সময় এলেই আমাদের পাশে আসে আর সারা বছর তাদের কোনো খোজ নেই। আমরা কিভাবে থাকি, কোথায় থাকি সেটা তারা কোনো দিন দেখতেও আসেনা। দেখবে বা কি কারণে তারা তো চার চাকার গাড়িতে চড়ে। যত দুর্ভোগ আমাদের।
শহরের কাটিয়া এলাকার আব্দুর রহিম জানান, আমরা দীর্ঘ দিন থেকে বর্ষা মৌসুমে পানি বন্দি আবস্থায় থাকলেও পৌর কর্তৃপক্ষের দীর্ঘস্থায়ী কোন উদ্যোগ নেই। জনপ্রতিনিধিরা পানি নেমে গেলে আর কোন খোঁজ রাখে না। কাউন্সিলরাও আমাদের কোন খোঁজ রাখেন না। তিনি আরো জানান, পানির বিষয়ে পৌর কর্তৃপক্ষের স্থায়ীভাবে কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন। তিনি আরো বলেন, সম্প্রতি পৌরসভার টাউন প্লানার, ইঞ্জিনিয়ার, সচিব বিদেশ ঘুরে এসেছে। তারা কি করছে আমাদের জন্য সেটাই প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাদের সেই সফরের কোন ফল তো আমরা পাচ্ছি না।
সাতক্ষীরা পৌরসভার সচিব মো. সাইফুল ইসলাম জানান, জলাবন্ধতা দীর্ঘ দিন থেকে হয়ে আসছে। আমারা সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করছি।
পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি জানান, পানি দ্রুত নিষ্কাশনের জন্য খড়িবিল ও গদাইপুর বিলের নেট পাটা অপসরণ করছি। পৌরসভার নিচু এলাকায় ড্রেন পরিষ্কারের ব্যবস্থা করছি। তিনি দ্রুত পানি নিষ্কাশন হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।