সোহরাওয়ার্দীতে নাগরিক সমাবেশ বিকেলে


145 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সোহরাওয়ার্দীতে নাগরিক সমাবেশ বিকেলে
নভেম্বর ১৮, ২০১৭ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের ইউনেস্কোর স্বীকৃতি উদযাপন করতে শনিবার বিকেলে সমাবেশের প্রস্তুতি নিচ্ছে আওয়ামী লীগ।

নাগরিক কমিটির ব্যানারে আয়োজিত এ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এতে সভাপতিত্ব করবেন ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।

আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা যায়, সমাবেশের সার্বিক তত্ত্বাবধানে রয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সমাবেশের জন্য ব্যানার নাগরিক কমিটির হলেও মূল পরিকল্পনায় আওয়ামী লীগের প্রচার উপকমিটি। সমাবেশে বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের সাফল্য, অর্জন ও উন্নয়নের কথা তুলে ধরা হবে।

প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও সমাবেশে বক্তৃতা করবেন পাঁচ বিশিষ্ট নাগরিক। তারা হলেন- অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল, সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, শহীদজায়া শ্যামলী নাসরীন চৌধুরী এবং বাংলাদেশে ইউনেস্কোর কান্ট্রি ডিরেক্টর বিট্রিস কালদুল।

সমাবেশে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। পরে ইউনেস্কোর প্রতিনিধির হাতে একটি ধন্যবাদ স্মারকও তুলে দেওয়া হবে।

এ আয়োজনে বক্তব্যের ফাঁকে-ফাঁকে থাকছে সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। সেখানে আবৃত্তি করবেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ও কবি নির্মলেন্দু গুণ। একক সঙ্গীতায়োজনে দেশের বিশিষ্ট শিল্পীদের মধ্যে সাজেদ আকবর, শাহীন সামাদ এবং চন্দনা মজুমদার সঙ্গীত পরিবেশন করবেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় থাকবেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার ও শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. আবদুল আলীম চৌধুরীর মেয়ে ডা. নুজহাত চৌধুরী।

নাগরিক সমাবেশ সফল করতে সর্বাত্মক প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠক ছাড়াও ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ নেতারা কয়েকটি বর্ধিত সভা করেছেন। দলের সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোও কর্মিসভা ও প্রস্তুতি সভা করেছে।

গত কয়েকদিন থেকে এ সমাবেশের মঞ্চ তৈরির কাজ চলছে। নৌকার আকৃতিতে সমাবেশের মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। এরই মধ্যে দূর থেকে আওয়ামী লীগের কর্মী, সমর্থক ও নেতাকর্মীরা সমাবেশ স্থলে আসতে শুরু করেছেন।

বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণকে গত ৩০ অক্টোবর ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ (বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য) হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণকে গত ৩০ অক্টোবর ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ (বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য) হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। এই স্বীকৃতি উদযাপনের কর্মসূচির আওতায় সভাবেশটি অনুষ্ঠিত যাচ্ছে।