সাকিবের জোড়া আঘাতের পর মাসাকাদজাকে ফেরালেন মাশরাফি


202 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাকিবের জোড়া আঘাতের পর মাসাকাদজাকে ফেরালেন মাশরাফি
জানুয়ারি ১৫, ২০১৮ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক বাংলাদেশের বিপক্ষে টসে হেরে আগে ব্যাট করছে জিম্বাবুয়ে।

তবে শুরুটা তাদের ভালো হয়নি। সাকিব আল হাসানের করা ম্যাচের প্রথম ওভারেই দুই উইকেট হারিয়ে বসে সফরকারীরা। এরপর দলীয় ৩০ রানে তৃতীয় উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে গেছে জিম্বাবুয়ে।

সোমবার বেলা ১২টায় রাজধানীর মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হয়। টস জিতে আগে জিম্বাবুয়েকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

ম্যাচের প্রথম ওভারেই স্পিনিং অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের হাতে বল তুলে দেন মাশরাফি। প্রতিদান দিতে দেরি করেননি বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক। প্রথম ওভারেই সাজঘরে ফেরত পাঠান জিম্বাবুয়ের দুই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানকে।

ওভারের প্রথম বলে এক রান নিয়ে জিম্বাবুয়ের রানের খাতা খোলেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। প্রান্ত বদল করে স্ট্রাইকে আসেন আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সলোমন মিরে। তাকে করা সাকিবের প্রথম বলটি ওয়াইড হলেও ক্রিজ থেকে বেরিয়ে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন মিরে। তিনি কোনো রানই করতে পারেননি।

মিরে আউট হওয়ার পর ব্যাট করতে নামেন ক্রেইগ আরভিন। তবে সাকিবের ঘূর্ণির সামনে দাঁড়াতে পারেননি তিনিও। ওভারের চতুর্থ বলটি লেগ সাইডে মারতে গিয়ে ঠিকমতো ব্যাটে-বলে করতে পারেননি আরভিন। মিড উইকেটে দাঁড়ানো ফিল্ডার সাব্বির রহমান অনেকটা আয়েশি ভঙ্গিতে ক্যাচ নিয়ে আরভিনকে সাজঘরের পথ দেখান। মিরের মতো আরভিনও আউট হন রানের খাতা খোলার আগেই।

প্রথম ওভারেই দুই উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে যাওয়া জিম্বাবুয়ে যখন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও ব্রেন্ডন টেইলরের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে তখনই আবার আঘাত হানেন অধিনায়ক মাশরাফি। মাসাকাদজাকে উইকেটের পেছনে মুশফিকুর রহিমের ক্যাচ বানিয়ে ২৮ রানের জুটি ভাঙেন ম্যাশ। সাজঘরে ফেরার আগে মাসাকাদজা করেন ১৫ রান।

ত্রিদেশীয় এই সিরিজ দিয়েই নতুন বছরে প্রথম মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ দল। টুর্নামেন্টের অপর দল শ্রীলংকা।

বাংলাদেশ দল: তামিম ইকবাল, এনামুল হক, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), নাসির হোসেন, সাব্বির রহমান, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন, সানজামুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে দল: হ্যামিল্টন মাসাকাদজা, সলোমন মিরে, ক্রেইগ আরভিন, ব্রেন্ডন টেইলর (উইকেটরক্ষক), পিটার মুর, সিকান্দার রাজা, তেন্দাই চাতারা, গ্রায়েম ক্রেমার (অধিনায়ক), কাইল জার্ভিস, ব্লেসিং মুজারাবানি, ম্যালকম ওয়ালার।