সাতক্ষীরায় জেলা পর্যায়ে অবহিতকরণ কর্মশালা


91 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
সাতক্ষীরায় জেলা পর্যায়ে অবহিতকরণ কর্মশালা
জানুয়ারি ১৬, ২০১৮ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি::
দারিদ্র্য বিমোচন ও টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকার দক্ষ জনশক্তি গঠনের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এ ব্যাপারে অর্থ মন্ত্রনালয়ের আওতায় ২০১৪ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত পাঁচ বছরে সরকারি খরচে পাঁচ লাখ দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার কাজ শুরু হয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় ২০২৩ সালের মধ্যে ১৫ লাখ দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলা হবে ।
মঙ্গলবার সাতক্ষীরায় এক কর্মশালায় এই তথ্য প্রকাশ করেছে অর্থ মন্ত্রনালয় গঠিত সেইপ ( স্কিলস ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম) নামের একটি প্রকল্প।
কর্মশালায় বলা হয় দেশে সোয়া চার কোটিরও বেশি মানুষের দারিদ্র্য বিমোচন এবং জাতীয় প্রবৃদ্ধির হার বর্তমানে ৭.২৬ থেকে ১০ এর উপরে নিয়ে যাবার লক্ষ্যে সেইপ প্রকল্প কাজ করে যাচ্ছে। দেশের বিভিন্ন বিষয়ের উদ্যোক্তাদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে বলা হয় তাদেরকে দক্ষ জনশক্তি তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা নেবে সেইপ। উদ্যোক্তারা তাদের প্রকল্প অনুযায়ী ১০ লাখ টাকার স্বল্প সুদের ঋণও পাবে বলে জানানো হয় কর্মশালায়। বাংলাদেশের ৬০ শতাংশ মানুষ এখন কর্মক্ষম। অথচ অদক্ষতার কারণে তারা চাকুরি ও কর্মসংস্থান খুঁজে পাচ্ছে না জানিয়ে আয়োজকরা বলেন প্রশিক্ষন গ্রহন করা থাকলে তারা বেকার থাকবেন না।
কর্মশালায় বলা হয় এই প্রকল্পের অধীনে প্রশিক্ষন প্রাপ্তদের ৭০ শতাংশ মানুষ সরকারি চাকুরিরও সুযোগ লাভ করবে। প্রশিক্ষন গ্রহনে সমাজের সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠী বিশেষ করে ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী, চর , হাওর এলাকার অধিবাসী, বিলুপ্ত ছিটমহলের অধিবাসী ও প্রতিবন্ধীরা অগ্রাধিকার পাবে। এতে ৩০ শতাংশ নারীর অংশগ্রহনও নিশ্চিত করা হয়েছে। প্রায় ৫০ টি ট্রেডে দেশের বিভিন্ন জেলায় টেকনিক্যাল ট্রেইনিং সেন্টারের মাধ্যমে এই প্রশিক্ষন চলছে। প্রশিক্ষনের অগ্রাধিকার ক্ষেত্র গুলির মধ্যে রয়েছে তৈরি পোশাক, নির্মান, তথ্য ও যোগযোগ প্রযুক্তি, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং, জাহাজ নির্মান, চামড়া ও পাদুকা, এগ্রো ফুডস, ট্যুরিজম।
জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এ কর্মশালায় প্রশিক্ষন গ্রহনের এসব তথ্য তুলে ধরেন সেইপ প্রকল্প সমন্বয়ক মো. জিয়াউদ্দিন। এতে আরও বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আবুল কাসেম মো. মহিউদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আবদুল হান্নান, প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, মো: আবদুল বারী, উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু প্রমুখ।