কপিলমুনির জাফর আউলিয়া সড়কে তীব্র যানজট : নাকাল পথচারী


158 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনির জাফর আউলিয়া সড়কে তীব্র যানজট : নাকাল পথচারী
এপ্রিল ১৬, ২০১৮ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার, কপিলমুনি ::
কপিলমুনি জাফর আউলিয়া সড়কে ভয়াবহ যানযটে নাকাল হচ্ছে স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীসহ পথচারী। ভয়াবহ এ যানযট দীর্ঘদিন ধরে চললেও বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটিসহ স্থানীয় প্রশাসন কুম্ভকর্নের ন্যায় পড়ে আছে। কপিলমুনি বাজারের ব্যস্ততম এ সড়কে অসংখ্য জুয়েলারী দোকান, পোষ্ট অফিস, অগ্রনী ব্যাংক, মাইক্রো ও প্রাইভেট কার ষ্ট্যান্ড, কপিলমুনি ইউনিয়ন পরিষদ, কপিলমুনি সহচরী বিদ্যা মন্দির, কপিলমুনি মেহেরুন্নেছা বালিকা বিদ্যালয়, কপিলমুনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ও কপিলমুনি কলেজে যাতায়াতের জন্য এ সড়কটি ব্যবহার করা হয়। তা ছাড়া তালতলা গোয়ালবাথানে যাতায়াতের জন্য বিভিন্ন যানবাহনের ষ্ট্যান্ডও এ সড়কের পাশে বালুর মাঠে অবস্থিত। তাই সংগত কারণে জাফর আউলিয়া সড়কটি অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ন। কিন্তু প্রতিদিনের তীব্র যানযটে পথচারীরা নিদারুন ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। রাস্তার কোল ঘেষে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠার ফলে রাস্তাটি সংকীর্ন হয়ে গেছে। যে কারণে যানযট তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এ ভযাবহ যানযট লেগেই থাকে। বিশেষ করে সকাল থেকে স্কুল কলেজ ছুটির সময় এ যানযট ভয়াবহ রুপ ধারন করে। স্কুল কলেজের শিক্ষক ছাত্রছাত্রীরা সময় মত বিদ্যাপিটে যেতে পারেনা। মূমুর্ষ রোগীরা এ রাস্তায় এসে আটকা পড়ে। বাগদা, গলদা ও অন্যান্য মাছের রেনু পোনা ও জরুরী ঔষধ সরবরাহের ক্ষেত্রে বাধাগ্রস্থ হয় এ সড়কে এসে। দেখা যায় অসংখ্য ভ্যান গাড়ী এ সড়কের পাশ জুড়ে বিক্ষিপ্ত ভাবে রাখার কারণে এ যানযট সৃষ্টি হচ্ছে। এ সব ভ্যান চালকদের রাস্তা পরিহার করতে অনুরোধ করলে তারা অশ্লীল ভাষায় কথাবার্তা বলে। এমনকি অপমান করার জন্য তারা তেড়ে আসে। জানা যায়, এ সব ভ্যান চালকদের অনেকেই মাদকসেবী। এরা নিয়মিত আরোহী না নিয়ে রাস্তার পাশ বন্দ করে ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থাকে। স্কুল কলেজগামী ছাত্রছাত্রীদের ও পথচারীদের ভোগান্তী নিরসনে দ্রুত এ সড়কটি যানযট মুক্ত করার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ভুক্তভোগীরা।