মুম্বাই-পাঞ্জাবের হারে প্লে অফে রাজস্থান


200 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
মুম্বাই-পাঞ্জাবের হারে প্লে অফে রাজস্থান
মে ২১, ২০১৮ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
রাজস্থান র‌য়্যালস তাদের শেষ ম্যাচে ব্যাঙ্গালুরুকে হারিয়ে নিজেদের কাজটা সেরে রেখেছিল। প্লে অফে যেতে তারা তাকিয়ে ছিল অন্য দলগুলোর উপরে। অপেক্ষায় ছিল মুম্বাই এবং পাঞ্জাবের হারের দিকে। দু’দলই হেরেছে। আর তাই সাত ম্যাচে জয় নিয়ে প্লে অফে চলে গেছে রাজস্থান। মুম্বাইয়ের সামনে দারুণ সুযোগ ছিল প্লে অফ খেলার। কারণ তাদের নেট রান রেট অন্যদের থেকে ভালো ছিল। কিন্তু শেষ ম্যাচে জিততে না পারায় বিদায় নিতে হলো গতবারের চ্যাম্পিয়নদের।

আর পাঞ্জাবকে শেষ চারে যেতে হলে পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ধোনীর চেন্নাইকে ৫৩ রানে হারাতে হতো। কিন্তু তারা ধোনীদের কাছে ৫ উইকেটে হেরেছে। বিদায় নিয়েছে এবারের আইপিএল থেকে।

প্রথমে ব্যাট হাতে পাঞ্জাব ১৯.৪ ওভারে ১৫৩ রানে অলআউট হয়ে যায়। পুনের মাঠে চেন্নাইয়ের পেস বল সামলাতে নাভিশ্বাস ওঠে পাঞ্জাবের। কিংসরা ৭ রানে, ১৪ এবং ১৬ রানে তিন উইকেট হারিয়ে বসে। সেখান থেকে মনোজ তিওয়ারির ৩০ বলে ৩৫ এবং করুণ নায়ারের ২৬ বলে ৫৪ রানের সুবাদে ১৫৩ রান তোলে।

ওই রান নিয়েই বেশ লড়াই করে পাঞ্জাব। পেস বোলিং দিয়ে তারাও কাপন ধরায় চেন্নাইয়ের ব্যাটিং শিবিরে। ৩ রানে প্রথম উইকেটের পর ২৭ রানে পরপর আরো দুই উইকেট তুলে নেয় পাঞ্জাব। সেখান থেকে রায়না-হরভজনের জুঁটিতে ঘুরে দাঁড়ায় চেন্নাই। শেষ পর্যন্ত ৪৮ বলে ৬১ রান করে ৫ উইকেটের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন রায়না। চেন্নাইয়ের হয়ে এ ম্যাচে দারুণ বল করেন এনগিডি। তিনি ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ১০ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন।

তবে হায়দরাবাদের সমান ১৪ ম্যাচে ৯ জয় নিয়েও শীর্ষে উঠতে পারেনি চেন্নাই। শেষ তিন ম্যাচে হারা হায়দরাবাদ নেট রান রেটে এগিয়ে থেকে শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে। তিনে আছে দিনেশ কার্তিকের কলকাতা। আর রাজস্থান চারে।

এই চার দলের মধ্যে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে ২২ মে সন্ধ্যায় পয়েন্ট টেবিলের দুই সেরা দল চেন্নাই এবং হায়দরাবাদের মুখোমুখি হবে । এখান থেকে জয়ী দল সরাসরি ফাইনালে চলে যাবে। এরপর এলিমিনেটর ম্যাচে ২৩ মে কলকাতা খেলবে রাজস্থানের বিপক্ষে। তাদের জয়ী দল দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার খেলবে চেন্নাই-হায়দরাবাদ ম্যাচের পরাজিত দলের সঙ্গে। ওই ম্যাচ জয়ী দল যাবে ফাইনালে। ২৭ মে মুম্বাইয়ে ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।