দুইজনকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা


87 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দুইজনকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা
জুন ২৪, ২০১৮ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
পাবনার সাঁথিয়ায় দুই ব্যক্তিকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে উপজেলার ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের তেবাড়িয়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন উপজেলার বড়ইবাড়ী গ্রামের মৃত দবির মল্লিকের ছেলে অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য আব্দুল গফুর ওরফে গফুর মিলিটারী (৫৫) ও গয়েশবাড়ী গ্রামের ময়েজ উদ্দিন সরদারের ছেলে মো. ইদ্রিস আলী (৩০)।

আতাইকুলা থানার ওসি মো. মাসুদ রানা জানান, সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে সাঁথিয়া উপজেলার আতাইকুলা থানাধীন তেবাড়িয়া বাজারে গফুর মিলিটারী একটি দোকানে বসে ছিলেন। হঠাৎ কয়েকজন দুর্বৃত্ত গফুর মিলিটারীকে চাপাতি দিয়ে এলোপাথারী কোপানো শুরু করে। এ সময় পাশের দোকানদার ইদ্রিস আলী এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে। এতে ঘটনাস্থলেই দুজনের মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

ওসি আরও জানান, তাৎক্ষণিক ভাবে হত্যাকাণ্ডের কারণ জানা সম্ভব হয়নি। তবে তদন্ত চলছে। ওই বাজার এবং স্থানীয় লোকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, গফুর মিলিটারি আগে চরমপন্থি দল পুর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি লাল পতাকার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ২০০০ সালে তিনি আত্মসমর্পণ করে স্বভাবিক জীবন যাপন করছিলেন। পরে তিনি আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদের পক্ষে কাজ শুরু করেন।

সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ বলেন, গফুর আওয়ামী লীগের একজন ত্যাগি কর্মী। আগে বিপথগামী থাকলেও বর্তমানে তিনি ভাল হয়ে এলাকার মানুষের সুখে দুঃখে পাশে থেকে কাজ করছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের ধারণা, চরমপন্থি দলের ক্যাডাররা এই হত্যকাণ্ড সংঘটিত করতে পারে। কারণ হত্যাকারীরা গফুরকে কুপিয়ে এবং গুলির পর শতভাগ মৃত্যু নিশ্চিত করে মাঠের মধ্যে দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

পাবনা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইবনে মিজান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, এ ঘটনায় গোটা এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ। মানুষজনকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি।