পাটকেলঘাটার নীলিমা কপোতাক্ষ ইকো পার্কের রাস্তার দু’ধারে অবৈধ দখলদারিত্ব


226 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাটকেলঘাটার নীলিমা কপোতাক্ষ ইকো পার্কের রাস্তার দু’ধারে অবৈধ দখলদারিত্ব
জুলাই ৯, ২০১৮ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অমিত কুমার, পাটকেলঘাটা ::
পাটকেলঘাটা বাসীর চিত্ত-বিনোদনের একমাত্র নীলিমা কপোতাক্ষ ইকো পার্কের রাস্তার দু’ধারে অবৈধ দখলদারিত্ব চরম আকার ধারন করেছে। সাথে পার্কের পাশের কপোতাক্ষের অপার রুপ সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য পাটকেলঘাটা ৩নং সরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমানের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় নদের পাশ দিয়ে বসার জন্য সৌন্দর্য মন্ডিত বেঞ্চ তৈরী করেছে। অত্যন্ত দুঃখের বিষয় বিনোদন উপভোগে আসা সর্ব সাধারনের জন্য বেঞ্চ গুলোতে বসার ব্যবস্থা থাকলেও বসতে পারেনা নোংরা, আবর্জনা, পচা আর মলমুত্র ত্যাগের দূগর্ন্ধে। অধিকাংশ বিনোদন প্রেমীদের অভিযোগ পাটকেলঘাটা বাসীর চিত্তবিনোদনের ব্যবস্থা হলেও এখনো সেভাবে পরিবেশ তৈরী হয়নি। ২০১৭ সালের ১লা অক্টোবর ততকালীর সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মোঃ মহীউদ্দীন জাক-জমকপূর্ণ ভাবে উদ্বোধন করেন এই পার্কটি। পরবর্তিতে পার্কের শ্রীবৃদ্ধিতে সরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। ইতিমধ্যে নদের ধারের মনোরম পরিবেশ সকলের নজর কাড়তে সমর্থন হয়েছে। তবে নীলিমা ইকো পার্ক থেকে পাটকেলঘাটা সিদ্দিকীয়া মাদ্রাসার দিকে যেতে চাইনা সাধারন জনগন, কারন দূর্গন্ধ, যত্রতত্র মল মুত্র ত্যাগ, সাথে সাথে রাস্তার ধারে বিভিন্ন ধরনের দখলদারিত্ব চোখে পড়ার মত। ভূমি দস্যুরা দখল করতে করতে পার্কের রাস্তা পর্যন্ত দখল করতে শুরু করেছে।
এ বিষয়ে পাটকেলঘাটা থানা ৩নং সরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান বলেন, রাস্তার পাশে যারা অবৈধভাবে ছোট ছোট স্থাপনা করেছে তাদের বলা হয়েছে সরিয়ে নেওয়ার জন্য। তাছাড়া পার্কের পাশেই দু’টা বাথরুমের কাজ আগামী মাসে শুরু হবে। এদিকে শ্মশান ঘাট পর্যন্ত বিনোদনে আসা মানুষের বসার ব্যবস্থা করার কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। তাছাড়া রকমারী গাছের চারা রোপন করে নৈসর্গিক সৌন্দর্য বৃদ্ধির কাজ চলমান। কপোতাক্ষের পাশের জায়গা গুলো উন্মক্ত রাখার জন্য সবাইকে সচেষ্ট হতে হবে।
##