পরিচয় না মিলায় তিন মাস ধরে বাংলাদেশীর লাশ মালয়েশিয়ার হাসপাতালে


192 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পরিচয় না মিলায় তিন মাস ধরে বাংলাদেশীর লাশ মালয়েশিয়ার হাসপাতালে
আগস্ট ৯, ২০১৮ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

 

শেখ সেকেন্দার আলী, মালয়েশিয়া :

নিয়তির কি নির্মম পরিহাস , ভাগ্য বদলানোর আশায় মালয়েশিয়ায় এসে লাশ হয়ে দীর্ঘদিন হসপিটালে থাকলেও পরিচয়ের অভাবে দেশে পাঠানো যাচ্ছে না দেহ । মালয়েশিয়ার সুঙ্গাই বুলু হাসপাতাল মর্গে ৩ মাস ধরে মোহাম্মদ হারুন মিয়া নামের এক বাংলাদেশির মরদেহ পড়ে আছে। এখন পর্যন্ত তার অভিভাবক খুঁজে না পাওয়ায় মরদেহ দেশে পাঠানো যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ দূতাবাস।
মোহাম্মদ হারুন মিয়া পাসপোর্ট নং বিবি ০৮১১৭০৭। হারুন মিয়া নরসিংদী জেলার পলাশ থানার তালতলা গ্রামের তাজ উদ্দিনের ছেলে বলে দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে।
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর সায়েদুল ইসলাম বুধবার এ প্রতিবেদককে জানান, সুঙ্গাইবুলু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ১ আগষ্ট একটি পত্র প্রেরণ করে। পত্রতে উল্লেখ করা হয় গত ১৬ মে হারুন মিয়া নামের এক বাংলাদেশি মৃত্যুবরন করেন। সঠিক অভিবাবক না পাওয়াতে মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা যাচ্ছে না। পাসপোর্টের ঠিকানা অনুযায়ী ও পাসপোর্টে উল্লিখিত ০১৭৪৯৩৯৮৬৯৫ এই মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করেও হারুন মিয়ার অবিভাবককে পাওয়া যাচ্ছে না। তার সঠিক ঠিকানা সংগ্রহে ৩ আগষ্ট ঢাকাস্থ ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডে একটি পত্র প্রেরণ করা হয়েছে।
হারুন মিয়ার সঠিক ঠিকানা ও অবিভাবকের খোজ পেলে দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর মো: সায়েদুল ইসলাম মোবা: ০১২২৯০৩২৫২, শ্রম শাখার প্রথম সচিব মো: হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল মোবা: ০১২২৯৪১৬১৭, শ্রম শাখার ২য় সচিব মো: ফরিদ আহমদ মোবা: ০১২৪৩১৩১৫০, নাম্বারে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।