তালার শালিকা কলেজ রোড খানা-খন্দে ভরা : চরম দুর্ভোগ


106 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালার শালিকা কলেজ রোড খানা-খন্দে ভরা : চরম দুর্ভোগ
আগস্ট ৯, ২০১৮ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা প্রতিনিধি :
তালা উপজেলার খেশরা ইউনিয়নের প্রাণ কেন্দ্র শালিকা মোড় থেকে মুড়াগাছাগামী সড়কের শালিকা কলেজ পর্যন্ত প্রায় এক কি.মি. ইটের রাস্তাটির বেহাল দশা হয়ে পড়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় চলতি বছর বর্ষা মৌসুম শুরু হতেই ইটের রাস্তার উপর প্রায় হাটু সমান কাঁদা ও পানি জমে গেছে। এতে জনগুরুত্বপূর্ন রাস্তাটি ব্যবহারে প্রায় অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।
সরেজমিনে দেখা যায়, রাস্তাটির তালা থেকে শালিখা মোড় পর্যন্ত পিচ করা হয়েছে। অপরদিকে একই রাস্তার হরিহরনগর বাজার থেকে শালিখা কলেজ পর্যন্ত পিচ করা হয়েছে। কিন্তু শালিখা কলেজ থেকে শালিখা মোড় পর্যন্ত পৌনে ১কিলোমিটার রাস্তা পিচ করা হয়নি। প্রাচীন এই রাস্তাটি দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে এর বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্ত তৈরি হয়েছে। রাস্তা দিয়ে মাইক্রো, মটরসাইকেল, সাইকেল, ভ্যান, ইঞ্জিনভ্যান ও ইজিবাইক সহ নানান যানবাহন ও সাধারন মানুষ চলাচল করছে কাঁদা পানির মধ্যদিয়ে। সামান্য বৃষ্টি হলেই রাস্তার গর্তগুলোয় পানি জমে খাদে পরিনত হচ্ছে। তখন রাস্তাটি সম্পূর্ণভাবে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে।
এই রাস্তাটি দিয়ে খেশরা ইউনিয়নের শাহপুর, হরিহরনগর, মুড়াগাছা, দরমুড়াগাছা, কলাগাছি, কুলপোতা গ্রামসহ বিভিন্ন এলাকার জনগন প্রতিনিয়ত তালা সদর, সাতক্ষীরা সদর, খুলনা, পাটকেলঘাটা বাজার, ইসলামকাটি রেজিস্ট্রী অফিস, কপিলমুনি বাজারসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যাতায়াত করে। এছাড়া এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকার শত শত ছাত্র-ছাত্রী শালিখা কলেজে যাতায়াত করে। তাছাড়া শালিখা বাজারটির দিন দিন প্রসার হওয়ায় কর্দমাক্ত রাস্তাদিয়ে শত শত মানুষ বাজারে আসা যাওয়া করে। রাস্তাটি অত্যন্ত খারাপ হয়ে যাওয়ায় জনসাধারণ চরম ভোগান্তীর সম্মুখীন হচ্ছেন।
এ ব্যাপারে ভ্যানচালক মনি খাঁ বলেন, “এই রাস্তা দিয়ে সব সময় আমি ভাড়া বোই। জেঠুয়া বাজারের থেকে শালিকা মোড় পর্যন্ত প্রায় চার কিঃমিঃ রাস্তা আসতে আমার যে সময় লাগে, শালিকা মোড় থেকে শালিকা কলেজ পর্যন্ত প্রায় এক কিঃমিঃ রাস্তা আসতে সেই সময় লাগে। এই রাস্তা দিয়ে চলার সময় ভ্যান প্রায়ই খারাপ হয়ে য়ায়”। বর্তমানে এই রাস্তা দিয়ে ভারি মাল নিয়ে কোনও ইঞ্জিন ভ্যান বা ট্রলি যাতায়াত করতে পারছেনা। শালিকা কলেজের ছাত্র মো. ইকবাল হোসেন বলেন, “আমি এবং আমার অনেক বন্ধুরা প্রতিদিন শাহজাতপুর থেকে এই রাস্তা দিয়ে শালিকা কলেজে আসি। রাস্তা অত্যন্ত খারাপ হওয়ায় আমাদের অনেক কষ্ট হয়, সময়ও বেশি লাগে”।
মুদি ব্যবসায়ী আতাউর রহমান বলেন, “আমাকে প্রায় প্রতিদিনই এই রাস্তা দিয়ে বিভিন্ন জায়গা থেকে দোকানের মাল নিয়ে আসতে হয়। রাস্তা অত্যন্ত খারাপ হওয়ায় সময়ও বেশি লাগে, ক্যারিং খরচও বেশি হয়। তাছাড়া মাল পড়ে যেয়ে নষ্ট হওয়ার আশংকা সব সময় থাকে।
এ ব্যাপারে এলজিইডি তালা উপজেলা প্রকৌশলী কাজী আবু সাইদ মো. জসিম জানান, শালিখা মোড় থেকে শালিখা কলেজ পর্যন্ত সড়ক এবং পার্শ্ববর্তি বালিয়া বটতলা থেকে বালিয়া বাজার পর্যন্ত সড়ক দুটি প্রকল্পের মাধ্যমে সংস্কার করার জন্য ইতোমধ্যে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।