খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের পাটকেলঘাটা কপোতাক্ষের ব্রীজের উপর গর্ত !


248 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের পাটকেলঘাটা কপোতাক্ষের ব্রীজের উপর গর্ত !
সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

*ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন

অমিত কুমার,পাটকেঘাটা ::
খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের পাটকেলঘাটা কপোতাক্ষের উপর বেইলী ব্রীজের উপর বেশকিছু ছোট বড় গর্তের সৃষ্টিতে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে যানচলাচল। এ সড়ক দিয়ে চলাচলকারী যাত্রীবাহী, মালবাহি যানবাহনসহ ছোটছোট যানবাহনগুলো চলাচল করছে ঝুঁকি নিয়ে। অতিদ্রুততার সাথে ক্ষতস্থানগুলো সংস্কার না করা হলে যে কোন মুহুর্তে বড় ধরনের ক্ষতিসহ প্রানহানির মত ঘটনা ঘটতে পারে। তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেছে সচেতন মহল।
সূত্রে জানা যায়, ১৯৫৭ সালে পাকিস্থান থাকাকালীন সময়ে কপোতাক্ষের উপর নির্মিত বেইলী ব্রীজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করা হয়। ১৯৬৫ সালে ব্রীজ নির্মান কাজ শেষ হয়। সময় লাগে দীর্ঘ ৮ বছর এবং ততকালীন প্রেন্সিডেন্ট আয়ুবখান ব্রীজটি উদ্বোধন করেন। ১৯৭১ সালের রক্তক্ষয়ি মুক্তিযুদ্ধের সময় ব্রীজটির পশ্চিম অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। পরবর্তিতে ১৯৭৩ সালে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আশার পর ক্ষতিগ্রস্থ ব্রীজটি পূর্ণ নির্মান করেন। ব্রীজটার বর্তমান বয়স ৫৩ বছর। এখনো মজবুত রয়েছে অনেক। ব্রীজটির পিচ খোয়া উঠে বর্তমানে মারাতœক খারাপ অবস্থায় রুপান্তিত হয়েছে। কিন্তু সাতক্ষীরা স্থল বন্দর ভোমরা থেকে মালবাহী ট্রাকগুলি এই ব্রীজের উপর দিয়ে যাতায়াত করে দেশের বিভিন্ন জেলায়। খুলনা, বাগেরহাট, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, শরীয়াতপুর মাওয়া হয়ে ঢাকা, অপর দিকে জামালপুর কুমিল্লা,নোয়াখালী, চট্রগ্রাম হয়ে কক্সবাজার কিন্তু ব্রীজের উপর মালবাহী, যানবাহনগুলো ব্রীজের উপর উঠে তখন আতংক বিরাজ করে। এছাড়া জীবনের ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে সাধারন জনগন। তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট চালক যাত্রী ও এলাকাবাসীর দাবী কপোতাক্ষেল উপর ব্রীজের গর্তগুলির পুটিং সহ জরুরী ভিত্তিতে সংস্কার জরুরী।