এমপি জগলুলের “উন্নয়ন রোড শো”


193 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
এমপি জগলুলের “উন্নয়ন রোড শো”
নভেম্বর ৪, ২০১৮ ফটো গ্যালারি শ্যামনগর
Print Friendly, PDF & Email

*শ্যামনগর ও কালিগঞ্জে হাজার হাজার মোটরসাইকেলে এমপি জগলুলের “উন্নয়ন রোড শো”

বিজয় মন্ডল ::
মহান জাতীয় সংসদের অধিবেশনে যোগদান করে আজ সকালে ঢাকা থেকে নিজ নির্বাচনী এলাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন সাতক্ষীরা-৪ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব এস, এম জগলুল হায়দার। তাকে অভ্যর্থনা জানাতে দুপুর থেকে ২০ টি ইউনিয়ন থেকে হাজার মোটরসাইকেল কালীগঞ্জ ব্রীজ সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু ম্যূরালের সামনে জড়ো হতে থাকে। শ্যামনগর বাসস্ট্যাণ্ড থেকে উপজেলার সকল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক এবং সকল অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহনে পাঁচ হাজারেরও বেশী মোটরসাইকেল সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড জহুরুল হায়দারের নেতৃত্বে র‌্যালী করে কালীগঞ্জ এসে উপস্থিত হয়।

বিকাল ৪ টায় এমপি মহোদয় পৌঁছালে নেতাকর্মীরা ফুল ছিটিয়ে তাকে বরণ করে নেয়। প্রথমে সকলকে নিয়ে বঙ্গবন্ধু ম্যূরালে পুষ্পস্তবক অর্পন করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এমপি। তারপর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও সফলতা প্রচার করতে দশ হাজারেরও বেশী মোটরসাইকেল সহকারে বিশাল মটর শোভাযাত্রা নিয়ে রওনা দেন এমপি। র্যালীটি শ্যামনগর এসে শেষ হয়ে জনসভায় অংশগ্রহন করে। জনসভায় সরকারের সফলতা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন এমপি। বক্তব্যে এমপি জগলুল বলেন, বিএনপি যখন ক্ষমতায় থাকে তাদের নেত্রী খালেদা জিয়া এতিমদের টাকা চুরি করে জেলে যায় আর আওয়ামীলীগের সভাপতি বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা এতিমদের কোলে বসিয়ে খাওয়ায়।এই হলো বিএনপি’র আসল চেহারা। বিএনপি জামায়াত জোট ক্ষমতায় এলে দেশে সহিংস জঙ্গিবাদ এবং লুটপাটের উত্থান ঘটে। সারের জন্য কৃষককে বুলেটে জীবন দিতে হয়, লোড শেডিংয়ে দেশ অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়। আর তার পুত্র তারেক জিয়া হাওয়া ভবন নামে দালালী কমিশন অফিস বসিয়ে মানুষ মারার পরিকল্পনা করে। তারেকের নির্দেশে এবং সেই বহুল আলোচিত হাওয়া ভবনের পরিকল্পনায় ২০০৪ সালের ২১ শে আগষ্ট গ্রেনেট হামলা চালিয়ে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করে আওয়ামীলীগ কে নেতৃত্ব শুন্য করতে চেয়েছিল। যেটা ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্টের রাতে বঙ্গবন্ধ’ পরিবার কে হত্যার ধারাবাহিক ঘটনা।
আজ বিএনপি নেতৃত্ব শুন্য হয়ে নাম সর্বস্ব দলে পরিনত হয়েছে। তাই ডাঃ কামালের মত জন বিচ্ছিন্ন নেতার পিছনে ঘুর ঘুর করে যুক্ত ফ্রন্টের নামে ঐক্য করেছে।