যুবলীগ নেতাসহ ২ জনকে গুলি করে হত্যা, গুলিবিদ্ধ ৫


266 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
যুবলীগ নেতাসহ ২ জনকে গুলি করে হত্যা, গুলিবিদ্ধ ৫
ডিসেম্বর ৬, ২০১৮ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

নড়াইলের কালিয়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবলীগ নেতাসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় কমপক্ষে আরও ৫ জন আহত হয়েছেন। তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের কান্দুরী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ওই গ্রামের সাদেক মোল্লার ছেলে ও ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমান আলী মোল্লা (৩৮) এবং ফহম মোল্লার ছেলে রুকু মোল্লা (৩৫)।

স্থানীয়রা জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন যাবত ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য মো. অলিয়ার রহমান মোল্লার সঙ্গে ইউপি চেয়ারম্যান কায়েসের সমর্থক হিসেবে পরিচিত বর্তমান ইউপি সদস্য ইলিয়াছ মোল্লার বিরোধ চলে আসছিল। সকালে অলিয়ার গ্রুপের সমর্থক ইমান আলী মোল্লা (৩৮) ও রুকু মোল্লাসহ (৩৫) ৭/৮ জন বাড়ির পাশের একটি জমিতে ধার কাটতে যান। এ সময় ইলিয়াছ গ্রুপের লোকজন দেশীয় ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় প্রতিপক্ষের ছোঁড়া গুলিতে ইমান আলী ও রুকু মোল্লাসহ একই গ্রামের আজিজুল মোল্লা (২৮), বিল্লাল মোল্লা (৩২), তিতু মোল্লা (৩৫), নান্নু মোল্লা (৪০) ও জসিম মোল্লা (৩৭) আহত হন। আহত হয়ে ইমান আলী ও রুকু হামলাকারীদের হাতে ধরা পড়লে তাদের কোপানো হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ইমান আলী নিহত হন। পরে রুকুকে মুমুর্ষূ অবস্থায় কালিয়া হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রুকুর স্ত্রী আফরোজা বেগম জানান, তার স্বামী দৌড়ে গিয়ে বাড়িতে পালালেও খুনিরা তাকে ছাড়েনি। স্বামীর জীবন বাঁচানোর চেষ্টা করতে গিয়ে তিনিও আহত হয়েছেন।

নিহতদের দলনেতা অলিয়ার মোল্লার ছেলে স্বজল মোল্লার অভিযোগ, কলাবাড়িয়া ইউপির চেয়ারম্যান কায়েস এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত।

এ বিষয়ে নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সরফুদ্দিন বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদেরকে আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তবে তাৎক্ষণিকভাবে আটকদের নাম-পরিচয় জানাতে পারেননি তিনি।