পাইকগাছা সংবাদ ॥ নৌকা প্রতীকের উঠান বৈঠক


142 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছা সংবাদ ॥ নৌকা প্রতীকের উঠান বৈঠক
ডিসেম্বর ১২, ২০১৮ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছায় নৌকা প্রতীকের উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সকালে চাঁদখালী ইউনিয়নের নগর এলাকায় অনুষ্ঠিত উঠান বৈঠকে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগনেতা জিএম ইকরামুল ইসলাম, গাজী শফিকুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম হীরা, মসিউর রহমান রাজু, শহিদুল গাজী, রেজাউল, জহুরুল, হাফিজুল, ইমরান, মোস্তাফিজুর, গফফার, মোস্তফা, আব্দুর রহমান, হাকিম, বারিক গাজী, সুব্রত, তুষার, ইসমাইল, কামরুল, আলাউদ্দীন, রাজ, হরিপদ ও আনিছ সরদার।

##

খুলনা-৬ আসনে আওয়ামী লীগ ও ২০ দলীয় জোটের পাল্টা পাল্টি আচারণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

খুলনা-৬ আসনে আওয়ামী লীগ ও ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের একে অপরের বিরুদ্ধে পাল্টা পাল্টি আচারণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুই জোটের পক্ষ থেকে সহকারী রিটার্নিং অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ২০ দলীয় জোট অভিযোগ করেছেন, মহাজোট সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আক্তারুজ্জামান বাবু’র নেতাকর্মীরা আচারণবিধিমালা লঙ্ঘন করে নির্বাচনী এলাকা কয়রা উপজেলার মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি আলমগীরের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা আবুল কালাম আজাদের ধানের শীষ প্রতীকের পোষ্টার টানানোর সময় তাদের উপর হামলা করে পোষ্টার ছিড়ে ফেলে। মহারাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে প্রচারের সময় আওয়ামী সমর্থিত চেয়ারম্যানের নির্দেশে তাদের লোকজন হামলা করে। এতে ধানের শীষ প্রতীকের দুই জন সমর্থক আহত হয়। এছাড়াও পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী, সোলাদানা ও চাঁদখালী ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে আওয়ামী নেতাকর্মীরা ধানের শীষ প্রতীকের পোষ্টার ছিড়ে ফেলেছে। সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মুনছুর আলী গাজী ২০ দলীয় জোটের চাঁদখালী ইউনিয়ন প্রচার সম্পাদক আব্দুল কাদেরকে বাসায় না পেয়ে তার স্ত্রীকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এভাবেই নানা ভাবে তারা হুমকি দিয়ে চলেছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। অপরদিকে পাইকগাছার মালথ গ্রামের মৃত সোনাই গাজীর ছেলে নৌকা প্রতীকের কর্মী ইসহাক আলী গাজী অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, মঙ্গলবার রাত ১২টার পরে হাবিবনগর মাদরাসা মোড় হতে বিরাশী মোড় পর্যন্ত টানানো নৌকা প্রতীকের পোষ্টার জামায়াতের উপজেলা আমীর শেখ কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা ছিড়ে ফেলেছে। অনুরূপভাবে পৌরসভার ১ ও ২ নং ওয়ার্ডে রাতে কে বা কারা নৌকা প্রতীকের পোষ্টার ছিড়ে ফেলেছে বলে এমপি প্রার্থীর কর্মী মোঃ আব্দুল গফফার মোড়ল জানিয়েছে। পৃথক দুটি অভিযোগের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সহকারী রিটার্নিং অফিসার জুলিয়া সুকায়না থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

##


২০ দলীয় জোটের সংবাদ সম্মেলন
খুলনা-৬ আসনে নির্বাচনী সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে প্রশাসনকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখার আহ্বান

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::
খুলনা-৬ আসনে নির্বাচনী সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার জন্য প্রশাসনকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন ২০ দলীয় জোট মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের নেতাকর্মীরা।

বুধবার বিকালে পাইকগাছা প্রেসক্লাবে লিখিত সংবাদ সম্মেলনে ২০ দলীয় জোটের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট মুহাম্মদ লিয়াকত আলী সরদার বলেন, বিগত ১০ বছর ধরে পাইকগাছা-কয়রা’র ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা অসহনীয় নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। দেশের মানুষের ভোটাধিকার ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। নেতাকর্মীদের নামে প্রায় লক্ষাধিক গায়েবী মামলা হয়েছে। অর্ধশতাধিক গায়েবী মামলায় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। নির্বাচনী এলাকা পাইকগাছা-কয়রার এমপি প্রার্থী মাওঃ আবুল কালাম আজাদও নির্মম নির্যাতনের শিকার। সরকার তার জনপ্রিয়তার ভয়ে তাকে বারবার কারারুদ্ধ করে রেখেছে। স্বাধীন গণতন্ত্রকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করেছে। অর্থনীতিকে ধ্বংস করে মাতৃভূমিকে তলা বিহীন ঝুড়িতে পরিণত করেছে। মানুষের বাক-স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিতে এবং জোট নেত্রী খালেদা জিয়া ও নেতাকর্মীদের মুক্তির আন্দোলন হিসাবে ২০ দলীয় জোট জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। যার অংশ হিসাবে খুলনা-৬ আসন থেকে জোটের প্রার্থী হিসাবে মাওঃ আবুল কালাম আজাদ ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। কিন্তু পরিতাপের বিষয় আওয়ামী মনোনীত প্রার্থী আক্তারুজ্জামান বাবু’র নেতাকর্মীরা প্রতিনিয়ত আচারণবিধি লঙ্ঘন করে ধানের শীষ প্রতীকের নেতাকর্মীদের উপর হামলা ও হুমকি-ধামকি অব্যাহত রেখেছে। জোটের এ নেতা সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষে নির্বাচনী লেবেল প্লেইং বজায় রাখার জন্য নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এ সময় জোটের অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

##