যত্রতত্র কান পরিষ্কার নয়


77 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
যত্রতত্র কান পরিষ্কার নয়
জানুয়ারি ৭, ২০১৯ ফটো গ্যালারি স্বাস্থ্য
Print Friendly, PDF & Email

ডা. মনিলাল আইচ ::

কান দিয়ে অনেকেরই পানি, পুঁজ পড়ে কিংবা কান পাকা রোগ হয়ে থাকে। কানে তুলনামূলক কম শোনা, মাথা ঘোরানো, কানে শোঁ শোঁ শব্দ করা এ রোগের উপসর্গ। এতে পোহাতে হয় নানা রকম দুর্ভোগ। বাংলাদেশের মতো অন্য উন্নয়নশীল দেশগুলোতে এই রোগ বেশি লক্ষ্য করা যায়। দারিদ্র্য, অপুষ্টি, স্বাস্থ্য সচেতনতা, স্বাস্থ্যশিক্ষার অভাবসহ বিভিন্ন কারণকে এ জন্য দায়ী করা হয়।

এই রোগে যে কোনো বয়সের নারী-পুরুষ আক্রান্ত হতে পারে। তবে শহরবাসীর তুলনায় গ্রামের মানুষের এই রোগ বেশি হয়। কান পাকা রোগটি মূলত দু’ধরনের। একটি হলো সেফ টাইপ বা টিউবোটিমপেনিক টাইপ। সাধারণত এটাতে তেমন কোনো জটিলতা দেখা যায় না। অপর ধরনটি আনসেফ টাইপ বা এটিকোএন্ট্রাল টাইপ। এ ধরনের কান পাকা রোগ থেকে মারাত্মক জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। যেমন- ব্রেইনঅ্যাবসেস, মেনিনজাইটিস, অ্যানসেফালাইটিস, ফেসিয়াল প্যারালাইসিস ইত্যাদি।

অযথা কান খোঁচাবেন না; ম্যাচের কাঠি, মুরগির পাখনা, ক্লিপ, নখ ইত্যাদি দিয়ে কান চুলকানো উচিত নয়। রাস্তাঘাটে যেখানে সেখানে কান পরিষ্কার করানোর জন্য বসে পড়া উচিত নয়। গোসলের সময় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে, যাতে কোনোভাবেই কানে পানি প্রবেশ না করে। প্রয়োজনে কানে ইয়ারপ্লাগ দিয়ে গোসল করতে হবে।

পুকুরে বা নদীতে ডুব দিয়ে গোসল করা ও ফ্রিজের পানি, আইসক্রিম, ঠাণ্ডা পানীয় ইত্যাদি পরিহার করতে হবে। সর্দি, কাশি, ঠাণ্ডা, জ্বর, নাক বন্ধ, গলা ব্যথা হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলতে হবে। কোনো সমস্যা হলে শুরুতেই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন, ভালো থাকুন।

লেখক : অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান, নাক কান গলা (ইএনটি) বিভাগ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও মিটফোর্ড হাসপাতাল